প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ
২১ জুন, ২০১৮ ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন


  

  • বেলকুচি/ অন্যান্য:

    প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ
    ১২ মার্চ, ২০১৮ ০৮:২৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    গত ৭ ও ৮ ই মার্চ বিভিন্ন স্থানীয়, জাতীয় ও অনলাইন পোর্টালে “বেলকুচিতে প্রকল্পের নামে মসজিদ ও ভিক্ষুকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ” শীরোনামে সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। রাজাপুর ইউনিয়নে র্ডপ কর্তৃক বাস্তাবায়নাধীন মসজিদ ভিত্তিক টিউবওয়েল, সেনিটেশন ও ভিক্ষুক পুনঃবাসন প্রকল্প বাস্তবায়নের আমি মোঃ আবুল মুনছুর ফকির সমৃদ্ধ কর্মসূচি সমন্বয়কারীর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনিত হয়েছে। তা সম্পূর্ণ রূপে মিথ্যা বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত। ২০১৬-২০১৭ইং অর্থবছরে পিকেএসএফ হতে এই ধরণের প্রকল্পের কাজ হয় নাই। ২০১৫-২০১৬ইং অর্থ বছরে যে ১৯টি মসজিদে সেনেটারী ল্যাকটিন ও ১৬টি মসজিদে অগভির নলকূপ স্থাপনের কাজ এসেছিলো তা সংস্থার ও পিকেএসএফ এর নিতিমালা অনুযায়ী শতভাত স্থাপন করা হয়েছিলো এবং তা বর্তমানে এলাকার জনগণ এর সুফল ভোগ করছে। সংবাদ পত্রের মাধ্যমে চর সমেশপুর, তামাই রোড, কদমতলী ও অন্যান্য মসজিদের কমিটি সুত্র দিয়ে সমৃদ্ধি কর্মসূচি প্রকল্পের কাজের বিবরণ দিয়ে যে সাইনবোর্ড লাগানো হয়েছে তাতে মোট ব্যায় ধরা হয়েছে ২৮ হাজার টাকা এ ধরণের সাইনবোর্ড কোথাও লাগানো হয়নি তবে যে সাইনবোর্ড লাগানো হয়েছে তা হলো প্রকল্পের অগভির নলকূপ বাবদ ১০ হাজার টাকা, স্যানেটারী ল্যাকটিন বাবাদ ১২ হাজার টাকা মোট ২০ হাজার টাকা বরাদ্দ রয়েছে। সংস্থার নিতিমালা অনুযায়ী মোট বাজেট এর ২০% কমিটি ব্যায় কিন্তু কমিটি কোন ব্যায় করেন নি। মোট বরাদ্দের ৮০% ব্যায় করা হবে এ লক্ষ্যে কমিটির সদস্যদের সাথে একটি সমঝোতা স্থাপন করা হয়েছে। সাইনবোর্ডে কমিটির অংশসহ মোট ২৬ হাজার ৪০০ টাকা লেখা হয়েছে। অধিকাংশ মসজিদেই প্রকল্পের সাইনবোর্ড লাগিয়ে কাজ সমাপ্ত রেখেই অর্থ উত্তোলন করা হয়েছে। যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহিন ও বানোয়াট। এসমস্ত প্রকল্প কাজ সম্পর্কে ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্যগণ ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানকে অবহিত করা হয়েছে। এছাড়া আমার সমস্ত কাজের জন্য মনিটরিং ও জবাব দিহিতা উর্ধতন কর্তৃপক্ষ নিয়েছে। ভিক্ষুক পুনঃবাসন প্রকল্পের অর্থ বরাদ্দের গোপনীয়তা নিয়ে প্রকল্পের অধিকাংশ টাকা আত্মসাত করার যে অভিযোগ আনা হয়ে তাও সম্পূর্ণ মিথ্যা তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। ভিক্ষুক পুনঃবাসন কালীন সময় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ভিক্ষুকের নিকট বিভিন্ন দ্রব্যাদি হস্তান্তর করা হয়েছে। তা আনুষ্ঠানিক ভাবে এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ সহ ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং পিকেএসএফ-এর উর্ধতন কর্তৃপক্ষের উপস্থিতিতে অভিযোগকারী ভিক্ষুকদের হাতে ১ লক্ষ টাকার মালামাল দেওয়া হবে বলে অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলকে অবহিতকরন করা হয়। মাইঝাইল গ্রামের ভিক্ষুক কাজেম শেখের মেয়ে যে অভিযোগ করেছে তা ঠিক নয়। ভিক্ষুকের অভিভাবক মুকুল হোসেন সহ এলাকার আরো গণ্যমাধ্য ব্যাক্তিবর্গের সম্মুখে তাকে ১ লক্ষ টাকার মালামাল বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। সমেশপুরের ভিক্ষুক বুলবুলি বেগমের যে অভিযোগ পত্রিকায় ছাপা হয়েছে তা সম্পূর্ণ রূপে মিথ্যা ও বানোয়াট। বুলবুলি বেগমকে ১ লক্ষ টাকার মালামাল বুঝিয়ে দেওয়া হয়। শুধু ৩০ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে গরু কিনে দেওয়া হয়নি তাকে ১টি অটোভ্যান জাহার মূল্য ৪১ হাজার ৫০০ টাকা ২টি ছাগল ৬ হাজার টাকা ও ২টি ভেড়া ৬ হাজার টাকা এবং ঘর মেরামত করে দেওয়া হয়েছে। ভ্যাট ট্যাক্সসহ তাকে ১ লক্ষ টাকার মালামাল দেওয়া হয়েছে যা ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্যসহ গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ গণ অবহিত আছেন। র্ডপ এর উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষসহ পিকেএসএফ-এর উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ পরিদর্শন করে গিয়েছেন। র্ডফ সমৃদ্ধি কর্মসূচি বাস্তবায়নের পণ্য সরবরাহকারী হাজী পান্নার যে বক্তব্য উপস্থাপন করা হয়েছে তাও সত্য নয় ১৯টি মসজিদেই স্যানেটারী ল্যাকটিন স্থাপন করা হয়েছে। পরবর্তীতে তার নিকট থেকে মালামাল না নেওয়ার ফলে লোভের বশে একথা বলে থাকতে পারে। সর্বপরি কিছু কুচক্রিয় মহল আমার ও প্রতিষ্ঠানের সুনামক্ষুন্ন ও হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য প্রতিবেদক কে ভুল তথ্য দিয়ে সংবাদটি প্রকাশিত করা হয়েছে তাহা আদো সত্য নয় সম্পন্ন মিথ্যা, ভিত্তিহিন ও বানোয়াট। প্রকাশিত সংবাদ গুলির আমি তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ যানাচ্ছি। প্রতিবাদকারী মোঃ আবুল মুনছুর ফকির র্ডফ সমৃদ্ধ সমন্বয়কারী বেলকুচি, সিরাজগঞ্জ।
    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বেলকুচি ১২ মার্চ, ২০১৮ ০৮:২৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 244 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    বেলকুচি অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    5896094
    ২১ জুন, ২০১৮ ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন