শাহজাদপুরের বড়মহারাজপুর-নন্দলালপুর-জিগারবাড়িয়া সড়কে ঝূঁকিপূর্ণ চলাচল
১৫ আগস্ট, ২০১৮ ০৭:২৫ অপরাহ্ন


  

   সর্বশেষ সংবাদঃ

  • শাহজাদপুর/ জনদুর্ভোগ:

    শাহজাদপুরের বড়মহারাজপুর-নন্দলালপুর-জিগারবাড়িয়া সড়কে ঝূঁকিপূর্ণ চলাচল
    ১৩ মার্চ, ২০১৮ ১০:৪৫ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    শামছুর রহমান শিশির : সিরাজগঞ্জ জেলার তাঁতসমৃদ্ধ শাহজাদপুর উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নের নগরডালা-জামিরতা সড়কের বড়মহারাজপুর করবস্থান সংলগ্ন এলাকা থেকে জিগারবাড়ীয়া পর্যন্ত প্রায় ৮ কিলোমিটার সড়কটি চলাচলের অনুপোযোগী হওয়ার এ জনগুরুত্বপূর্ণ সড়ক দিয়ে নিয়মিত প্রায় অর্ধলক্ষাধিক লোকের চলাচলে ও মালামাল পরিবহনে সীমাহীন দুর্ভোগ-দুর্গতি পোহাতে হচ্ছে। জনসাধারনের এ জনদুর্ভোগ লাঘবের কেউ নেই। ফলে পোরজনা ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামের প্রায় অর্ধলক্ষাধিক লোকের দুর্ভোগ-দুর্গতি ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এছাড়া এ সড়কটির কিছুদুর পরপরই প্রস্থ এতটাই সংকীর্ণ ও সরু যেখান দিয়ে একটি রিক্সা বা ভ্যান চলাচলই দূরহ।ফলে ওই সব সরু স্থান দিয়ে মালামাল পরিবহনে দশ মিনিটের পথ পাড়ি দিতে ঘন্টার ওপরে সময় লাগছে। জনগুরুত্বপূর্ণ ওই কাঁচা সড়ক দিয়ে নন্দলালপুর, কুঠিবাড়ী,কুলিয়ারচর, জিগারবাড়িয়াসহ আশেপাশের বিশাল জনগোষ্ঠি নিয়মিত চলাচল ও কৃষিপন্যসহ সকল ধরনের মালামাল পরিবহনে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাচ্ছে।অথচ মাত্র ৮/৯ কিলোমিটারের অতি স্বল্প দৈর্ঘ্যরে ওই সড়কটি পাঁকা করা হলে একদিকে যেমন এলাকাবাসীর দুর্ভোগ-দুর্গতি কমবে,অন্যদিকে তাদের সময় ও অর্থেরও সাশ্রয় হবার পাশাপাশি কৃষিসমৃদ্ধ এলাকায় অভূতপূর্ব উন্নয়ন হবে। আজ (মঙ্গলবার) বিকেলে সরেজমিন ওই সড়ক পরিদর্শন করে জানা গেছে, প্রায় ৮ কিলোমিটার দৈর্ঘের ওই সড়কটির প্রায় সিংহভাগ অংশই চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ায় এ সড়ক দিয়ে কয়েকটি গ্রামের লোকজনের চলাচল, মালামাল পরিবহন দূরহ ও অত্যন্ত কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। কাঁচা এ সড়কের বিভিন্ন স্থানের অবস্থা অত্যন্ত নাজুক।তার পরও এলাকাবাসী নিরুপায় হয়ে এ সড়কদিয়ে দ্বিগুন সময় ও দ্বিগুন অর্থ ব্যায় করে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে। শাহজাদপুর উপজেলার পৌরসদর থেকে ওইসব গ্রামের অবস্থানগত দুরত্ব খুব বেশী না হলেও ওই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি আজও মান্ধাতা আমলের অন্ধকারে নিমজ্জিত রয়েছে। জনগুরুত্বপূর্ণ বড়মহারাজপুর-নন্দলালপুর-জিগারবাড়ীয়া ওই সড়কটি দিয়ে জনসাধানের চলাচল ছাড়াও শতশত স্কুল-কলেজের ছাত্র/ছাত্রীদের নিয়মিত চলাচলসহ সকল ধরনের পন্য ও মালামাল আনানেওয়া করতে তারা বাধ্য হচ্ছে। এ সড়ক দিয়ে নিয়মিত, ধান, চাল, পাট, সরিষা, দুধের ক্যান, সার, জ্বালানী তেল, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যসহ নানা ধরনের মালামাল ও কৃষিপন্য আনা নেওয়া করা হচ্ছে। ওইসব এলাকা কৃষিসমৃদ্ধ এলাকা হলেও কৃষিখাতের অগ্রগতির প্রধান অন্তরায় হয়ে দাড়িয়েছে চলাচলের অনুপোযোগী এ সড়কটি । ওই সড়ক দিয়ে নন্দলালপুর, কুঠিবাড়ী, কুলিয়ারচর, জিগারবাড়ীয়া, নগরডালাসহ আশেপাশের অসংখ্য লোক প্রতিনিয়ত যাতায়াত করছে। ফলে প্রতিটি ক্ষেত্রে তাদের নানা সমস্যা ও প্রতিবন্ধকতার সন্মুখীন হতে হচ্ছে। কিন্তু দেখার কেউ নেই। তাই বাধ্য হয়ে মাঝে মধ্যে এলাকাবাসী ব্যাক্তি উদ্যোগের মাধ্যমে ওই সড়কের বিভিন্ন স্থান সংস্কার করলেও তা স্থায়ী না হওয়ায় সমস্যার স্থায়ী সমাধান ও কাজের কাজ কিছু হচ্ছে না। জনদুর্ভোগ থেকেই যাচ্ছে। প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ নেই-তাই সংস্কার কাজ সম্ভব হচ্ছেনা-স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের ভাষ্য এটাই। বিজ্ঞ মহলের মতে,’অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন ওই সড়কটি চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়ায় এসব এলাকা থেকে বাঘাবাড়ী মিল্কভিটায় দুধের ক্যানসহ সকল ধরনের কৃষি পন্যদ্রব্য ও মালামাল পরিবহন করা অত্যন্ত মুশকিল হয়ে পড়েছে। ’। এদিকে ওই গুরুত্বপূর্ন সড়কটি দ্রুত মেরামত করতে সংশি¬ষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা ও আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ওই সড়কে চলাচলকারী ভূক্তভোগী প্রায় অর্থ লক্ষাধিক এলাকাবাসী।
    সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, শাহজাদপুর ১৩ মার্চ, ২০১৮ ১০:৪৫ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 260 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    শাহজাদপুর অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    6535590
    ১৫ আগস্ট, ২০১৮ ০৭:২৫ অপরাহ্ন