আব্দুল্লাহ আল মাসউদ মুক্তা সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ
২০ অক্টোবর, ২০১৮ ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন


  

  • সিরাজগঞ্জ/ সাফল্যগাথা:

    আব্দুল্লাহ আল মাসউদ মুক্তা সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ
    ১০ জুলাই, ২০১৮ ০৪:২০ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কারিগরি শিক্ষার অন্যতম প্রতিষ্ঠান ‘সিরাজগঞ্জ সদর টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড বিএম ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ মুক্তা সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ (কারিগরি) নির্বাচিত হয়েছেন। 


    সোমবার সকালে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা হলরুমে উপজেলা পর্যায়ে জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৮ উদ্যাপন ও পুরস্কার বিতরণ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ মুক্তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ হিসেবে সনদ ও ক্রেষ্ট তুলে দেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ রিয়াজ উদ্দিন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরকার মোহাম্মদ রায়হান, সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শামিম আরা প্রমুখ।


    কারিগরি শিক্ষাবোর্ডে একাধিকবার শীর্ষস্থান অর্জনকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ (মুক্তা)। তিনি ১৯৭৪ সালের ১ নভেম্বর সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার খোকশাবাড়ী লিচু বাগান মহল্লায় এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, সমাজসেবক মোঃ আব্দুল মজিদ। তিনি সিরাজগঞ্জ সদর টেকনিক্যাল এন্ড বিএম ইন্সটিটিউটের প্রতিষ্ঠাতা, মাতা মোছাঃ জোবায়দা আজিম আদর্শবান সুগৃহিনী ও সিরাজগঞ্জ সদর টেকনিক্যাল এন্ড বিএম ইন্সটিটিউটের দাতা সদস্য। তার দাদা মরহুম বয়েত আলী গ্রাম সরকার প্রধান ছিলেন, দাদী মরহুমা আজিতন্নেছা গৃহিনী। নানা মরহুম এনায়েতুল্লাহ আজিম বি.এল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন। নানী মরহুমা হাফিজা খাতুন গৃহিনী ও পাচটিকরী অন্ধ হাফেজের মেয়ে। 


    মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ (মুক্তা) ১৯৯০ সালে সিরাজগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বি.এল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি, সিরাজগঞ্জ সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৯৬ সালে বিএসএস (সম্মান) ও একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৯৭ সালে এমএসএস ডিগ্রী লাভ করেন। 


    কৃতিত্বপূর্ণ শিক্ষাজীবন শেষ করে মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ (মুক্তা) ২০০০ সালে বিসিকের কর্মকর্তা হিসেবে কর্মজীবনে প্রবেশ করেন। পরবর্তীতে ২০০২ সালে ফুলকোচা কলেজে প্রভাষক (অর্থনীতি) হিসেবে যোগদান করেন। মনের অন্ধকার দূর করে আলোকিত জীবন গঠনের প্রত্যয় নিয়ে মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ (মুক্তা) জন্মভূমি সদর উপজেলার খোকশাবাড়ী এলাকার শিক্ষা বঞ্চিত অবহেলিত শিক্ষার্থীদের শিক্ষার আলোয় আলোকিত করার উদ্দেশ্য নিয়ে স্থানীয় শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিগণের সহযোগিতায় প্রতিষ্ঠা করেন সিরাজগঞ্জ সদর টেকনিক্যাল এন্ড বিএম ইন্সটিটিউট। তিনি প্রতিষ্ঠাকালীন থেকেই এই প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।  


    কর্মকালে প্রতি ক্ষেত্রেই সাফল্য ছিল উল্লেখ করার মতো। কর্মকালে সিরাজগঞ্জ সদর টেকনিক্যাল এন্ড বিএম ইন্সটিটিউট ২০০৯ সালে সমগ্র বাংলাদেশে ৭ম স্থান এবং ২০১১ সালে সমগ্র বাংলাদেশে ১৬তম স্থান অর্জন করায় কারিগরি শিক্ষাবোর্ড থেকে বিশেষ সম্মাননা সনদ প্রদান করা হয়। কলেজটি ২০১৬ সালে জেলার শ্রেষ্ঠ কারিগরি প্রতিষ্ঠান হওয়ার গৌরব অর্জন করে। এই প্রতিষ্ঠান থেকে ১২টি ব্যাচে প্রায় আট শতাধিক ছাত্রছাত্রী উত্তীর্ণ হয়ে অনেকেই উচ্চ শিক্ষা অর্জনসহ কর্মজীবন শুরু করেন।


    মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ (মুক্তা) মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী দেশপ্রেমিক, সকল কাজে দেশপ্রেমের স্বতঃস্ফুর্ত উপস্থাপন, সদা মিষ্টভাষী, নিচু কণ্ঠস্বর, নিরহংকারী ও পরোপকারী, সৎ চরিত্রের অধিকারী, কর্মোদ্দ্যমী, সাদামাঠা জীবনযাপনকারী ও মিতব্যয়ী। তিনি সিরাজগঞ্জ স্কুল অব ইনোভেটিভ টিচিং (সিট স্কুল) এর গর্ভনিং বডির সদস্য। বাংলাদেশ কারিগরি কলেজ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সিরাজগঞ্জ জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক, সিট পলিটেকনিক ও মেডিকেলের উদ্যোক্তা সদস্য ও পরিচালক, আর্থ সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা অ্যাসেট সিরাজগঞ্জের সাধারণ সম্পাদক, খোকশাবাড়ী মা জোবায়দা মক্তবখানার প্রতিষ্ঠাতা, খোকশাবাড়ী আলোকিত গ্রাম উন্নয়ন সমিতির সভাপতি।   


    মোঃ আব্দুল্লাহ আল মাসউদ (মুক্তা) সামাজিক বিভিন্ন কর্মকাÐে অংশগ্রহণ করে থাকেন। এছাড়াও তিনি বৃক্ষরোপন, মসজিদের উন্নয়নে সহযোগিতা, বয়স্ক শিক্ষা কার্যক্রম, বাল্য বিবাহ বিরোধী প্রচারণা, পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক অভিযান পরিচালনা, নৈতিক চরিত্র উন্নয়নকল্পে বিভিন্ন আলোচনা, যুব সমাজের উন্নয়নের লক্ষ্যে খেলাধুলা সামগ্রী বিতরণ, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য ছাত্রছাত্রীদেরকে কারিগরি শিক্ষায় উদ্বুদ্ধ করতে কাজ করে যাচ্ছেন। তাঁর প্রিয় শখ গান শোনা, কাজ করা, তিনি ক্যারম ও ব্যাডমিন্টন খেলায় বিশেষ পারদর্শী। তিনি গ্রামের অবহেলিত পরিবারের শিশুদের মান সম্পন্ন পরিবেশে পাঠদান করার উদ্দেশ্য নিয়ে খোকশাবাড়ীতে প্রতিষ্ঠা করেছেন ‘মুক্তার পরস মডেল স্কুল’। 


    ব্যক্তিগত জীবনে তাঁর সহধর্মিনী মোছাঃ রেবেকা সুলতানা এমএসসি (উদ্ভিদবিদ্যা) একজন আদর্শবান সুগৃহিনী ও কুড়িপাড়া কাওয়াকোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা। তাদের ১ মেয়ে ইসমাত তাসকিন সিরাজগঞ্জ সালেহা ইসহাক সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী ও ছেলে আয়মান আহমেদ কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজে কেজিতে অধ্যয়নরত।

    অনলাইন নিউজ এডিটর ১০ জুলাই, ২০১৮ ০৪:২০ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 159 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    সিরাজগঞ্জ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    7339643
    ২০ অক্টোবর, ২০১৮ ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন