এনায়েতপুর-চৌহালীতে চলছে বালু লুট
১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ০৩:২৫ অপরাহ্ন


  

  • চৌহালী/এনায়েতপুর/ অপরাধ:

    এনায়েতপুর-চৌহালীতে চলছে বালু লুট
    ১২ আগস্ট, ২০১৮ ০৭:৫৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর ও চৌহালীতে যমুনা নদী থেকে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে ড্রেজার ও ভলগেট মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন ও বিক্রি করছে স্থানীয় প্রভাবশালী বালুদস্যূ চক্র। একারনে সরকার হারাচ্ছে মোটা অঙ্কের রাজস্ব আর প্রভাবশালী বালুদস্যূ চক্র হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা, অপর দিকে স্থানীয় প্রশাসনের কতিপয় কর্তাব্যক্তি নিয়মিত সুবিধা নেয়ায় বালু তোলা ও বিক্রি বন্ধ হচ্ছে না এমন অভিযোগ এলাকাবাসির। তবে শুক্রবার দুপুরে যমুনা নদীর এনায়েতপুরে দুই ব্যবসায়ীকে ১লক্ষ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।


    সরেজমিন প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, যমুনা নদী বেষ্টিত চৌহালী উপজেলায় কোথায়ও সরকার অনুমোদিত কোন বালুমহল ও বালু উত্তোলনে প্রশাসনের অনুমতি নেই। তারপরও স্থানীয় প্রভাবশালী বালু দস্যূরা দীর্ঘ দিন ধরে যমুনা নদীর সদিয়া চাঁদপুর, স্থল ইউনিয়ন ও যমুনার পূর্বপাড়ে বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে বিশাল আকৃতির ৮-৯টি ভলগেট ও ড্রেজার দিয়ে ৮-১০জনের বালুখেকো চক্র প্রতিদিন প্রায় দেড়লক্ষাধিক ঘন ফুট বালু উত্তোলন করছে।  


    এছাড়া ইঞ্জিনচালিত নৌকা ও ভলগেটের সাহায্যে চরের নিচু জমি থেকে দেশীয় পদ্ধতিতে বালু তুলে এনায়েতপুর স্পার বাঁধ ও চৌহালীর বিভিন্ন স্পটে গড়েছে বালুর স্তুপ। সেখান থেকে ট্রাক ও ট্রলিতে এলাকাসহ পাশের উপজেলার বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে নির্মাণ কাজ ও খাল ভরাটের কাজ চলছে। বালু ব্যবসায়ীরা অবৈধভাবে বালু বিক্রি করে হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা। আর সরকার হারাচ্ছে মোটা অংকের রাজস্ব, অপর দিকে বালুখেকোরা হচ্ছে বিত্তশালী। তবে বালু দস্যূদের নিকট থেকে প্রশাসনের কতিপয় অসাধু কর্তাব্যক্তি ও কর্মচারী অনৈতিক সুবিধা নিচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। একারনেই বালু তোলা ও বিক্রি বন্ধ হচ্ছে না বলে তারা জানান। 


    এদিকে বালূ উত্তোলন চক্রের একটি সূত্র নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, যাদের অবগত করা দরকার তারা সবাই অবগত আছেন, তাদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করেই বালু তুলি। এবিষয়ে কিছু লিখে কারো লাভ হবে না, আমাদের সাময়িক কিছু ক্ষতি হবে। এদিকে এভাবে অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলনের ফলে গত তিন মাসে এনায়েতপুরের ব্রাহ্মনগ্রাম ও আড়কান্দি ও চৌহালীর বিভিন্ন স্থানে তীব্র নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে। নদী ভাঙনে দুই হাজার বসত-ভিটা ও ফসলি জমি নদীতে বিলীন হয়েছে।


    এতে হুমকির মুখে পড়েছে দেশের সর্ববৃহৎ কাপড়ের হাট, খাজা ইউনুস আলী মেডিকেল কলেজ, হাসপতাল ও বিশ্ববিদ্যালয় সহ বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, চারটি গ্রামের শত শত ঘর-বাড়ি ও তাঁত কারখানা। এ অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে তারা উর্ধ্বতন মহলের কার্যকর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এদিকে এলাকাবাসির অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার দুপুরে চৌহালী ইউএনও (ভার.) আনিছুর রহমান এনায়েতপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের সাথে জড়িত দুই ব্যবসায়ীকে ১লাখ টাকা জরিমানা করেছে।


    সূত্রঃ দ্যা পিপলস নিউজ২৪

    অনলাইন নিউজ এডিটর ১২ আগস্ট, ২০১৮ ০৭:৫৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 233 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    চৌহালী/এনায়েতপুর অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    7664612
    ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ০৩:২৫ অপরাহ্ন