কাজিপুরে যমুনার স্পারে ধস, ভাঙন আতঙ্কে এলাকাবাসী
১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ০৩:২৩ অপরাহ্ন


  

  • কাজিপুর/ জনদুর্ভোগ:

    কাজিপুরে যমুনার স্পারে ধস, ভাঙন আতঙ্কে এলাকাবাসী
    ৩০ আগস্ট, ২০১৮ ০৫:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার পাটাগ্রাম এলাকায় যমুনার স্পার বাঁধে ধস দেখা দেওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে ভাঙন আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। দুই মাসের ব্যবধানে মাটি ধসে যাওয়ায় স্পারটি ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। এতে এ অঞ্চলের অন্তত ৫টি গ্রামের মানুষ নদী ভাঙনের আশঙ্কায় রয়েছে।  


    বুধবার সকালে সরেজমিনে পাটাগ্রাম এলাকায় গেলে এমন আতঙ্কের কথা জানান স্থানীয়রা। 


    জেল হোসেন, হবিবর রহমান, আমির হোসেন ও মুকুল হোসেনসহ পাটাগ্রাম এলাকার অনেকেই বলেন, প্রায় ২০ বছর আগে ১৯৯৯ সালে পাটাগ্রামসহ আশপাশের কয়েকটি গ্রামকে যমুনার ভাঙন থেকে রক্ষায় ২শ’মিটার এই স্পারটি নির্মাণ করে পানি উন্নয়ন বোর্ড। এটি নির্মাণের ফলে প্রবল ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা পায় অন্তত ৫টি গ্রাম। পুনরুদ্ধার হয় শত শত হেক্টর জমি। 


    কিন্তু গত জুলাই মাস থেকে স্পারটির নিচের মাটিতে ধস শুরু হয়।  ফলে ঝুঁকির মুখে পড়েছে এ স্পারটি। জরুরি ভিত্তিতে বিধ্বস্ত স্থানগুলো সংস্কার না করলে যেকোন মুহূর্তে ভেঙে যেতে পারে। এতে গান্ধাইল ইউনিয়নের পাটাগ্রাম, খুকশ্যা, বাইখোলা ও সদর রতনকান্দী হাটসহ বেশ ক’টি গ্রাম ভাঙনের কবলে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। 


    পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুল ইসলাম জানান, পাটাগ্রাম স্পার নিয়ে আতঙ্কের কিছু নেই। ওই স্পারটিসহ যমুনা নদীর তিনটি স্পার শক্তিশালীকরণ, উপজেলার ৭.২ কিলোমিটার নদীতীর সংরক্ষণ বাঁধ নির্মাণ ও ৪টি ক্রসবার বাঁধ নির্মাণে প্রায় ৯শ’ কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রকল্পটি মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। আশা করছি আগামী বর্ষা মৌসুমের আগেই এ প্রকল্পের কাজ শুরু হবে।  

    অনলাইন নিউজ এডিটর ৩০ আগস্ট, ২০১৮ ০৫:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 237 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    কাজিপুর অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    7664592
    ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ০৩:২৩ অপরাহ্ন