তাড়াশে কাজ পাচ্ছে না আদিবাসীরা
১৪ নভেম্বর, ২০১৮ ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন


  

  • তাড়াশ/ জীবনযাত্রা:

    তাড়াশে কাজ পাচ্ছে না আদিবাসীরা
    ১৩ অক্টোবর, ২০১৮ ০২:৩৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    আশরাফুল ইসলাম রনি: চলনবিল অঞ্চলের বিভিন্ন বসতভূমিতে বাস করে আদিবাসী সম্প্রদায়। তবে নানা প্রতিকূলতায় তাদের সংখ্যা ক্রমেই কমে আসছে। এরপরও চলনবিলসংলগ্ন সিরাজগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায় এখনো বাস করছে ১৪-১৫টি সম্প্রদায়ের কমপক্ষে ৪৫-৪৭ হাজার আদিবাসী। ওরাও, মাহাতো, সাঁওতাল, মুড়ারী, রবিদাস, কনকদাস, সিং, তেলী, তুড়ি, বরাইক ইত্যাদি গোত্রভুক্ত তারা। ৮০-৯০ শতাংশ আদিবাসীই ভূমিহীন। পরিশ্রমী এবং প্রতিকূল কাজেও পিছপা হন না বলে আদিবাসী কৃষকদের বেশ চাহিদাও ছিল অতীতে। গৃহস্থ বাড়িতে বার্ষিক অর্থচুক্তিতে তাদের নিয়োগ করা হতো।

    এখন সময় পাল্টেছে। কৃষিতে প্রযুক্তির ব্যবহার বেড়েছে। সমতলের কৃষিনির্ভর এ আদিবাসীরাও পড়েছেন অসুবিধায়। তাদের স্থান দখল করে নিচ্ছে আধুনিক কৃষি উপকরণ। শুধু কৃষি শ্রমিকের কাজ করে আর জীবননির্বাহ করতে পারছেন না তারা। কেননা বিত্তশালী কৃষকরা আর তাদের প্রয়োজন অনুভব করছেন না।

    উপজেলার মাঝদক্ষিণা গ্রামের আদিবাসী কৃষি শ্রমিক উজ্জল কুমার বলেন, এমনিতেই আদিবাসীদের নিজস্ব জমিজমা নেই। এখন কৃষি শ্রমিক হিসেবেও তাদের প্রয়োজন ফুরাচ্ছে। এ কারণে বেকারত্ব ব্যাপকভাবে বেড়ে গেছে তাদের ভেতর। বেকারত্বের ধাক্কায় অনেকেই বিকল্প কর্মসংস্থানের পথে পা বাড়াচ্ছেন। সরকারি চাকরির কোটা সুবিধা সমতলের আদিবাসীদের কপালে তেমন জোটে না বলে মনে করেন স্থানীয় ওঁরাও ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক যোগেন্দ্র নাথ টপ্প্য।

    সিরাজগঞ্জ জেলা আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সুশীল কুমার মাহাতো বলেন, ‘সহজ-সরল ও দরিদ্র আদিবাসীরা নানা সুযোগ-সুবিধার জন্য তাদের আদি ধর্ম ছেড়ে দিতে বাধ্য হচ্ছে।

    স্টাফ করেস্পন্ডেন্ট, তাড়াশ ১৩ অক্টোবর, ২০১৮ ০২:৩৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 213 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    তাড়াশ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    7653639
    ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ ০৯:৪৯ পূর্বাহ্ন