সিরাজগঞ্জে বিদ্যালয়ের অর্থ সম্পদ আত্মসাৎঃ সুপার গ্রেফতার
১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৯:৩৬ পূর্বাহ্ন


  

  • সিরাজগঞ্জ/ অপরাধ:

    সিরাজগঞ্জে বিদ্যালয়ের অর্থ সম্পদ আত্মসাৎঃ সুপার গ্রেফতার
    ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৭:৪১ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    সোহাগ হাসান জয়ঃ সিরাজগঞ্জের বহুল পরিচিত মুক্তিযোদ্ধা কারিগড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের বরখাস্তকৃত সুপার আব্দুস সালাম খানকে কাজিপুর থানা পুলিশ মঙ্গলবার গভীর রাতে তার নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করেছে। তার বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠানের মোটা অংকের অর্থ  ও সম্পদ আত্মসাতের মামলা হয়েছে। বিজ্ঞ আমলী আদালত থেকে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারীর পর পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। 

    সিরাজগঞ্জ জেলার কাজিপুর উপজেলার গান্ধাইল ইউনিয়নে প্রতিষ্ঠিত মুক্তিযোদ্ধা কারিগড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সুপার ও মামলার বাদী মো: আবু হাসান এবং কাজিপুর থানা সূত্রে জানা যায়, আব্দুস সালাম খান(৫০) ২০১৪ সাল হতে ২০১৬ সাল পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানের সুপারের দায়িত্বে থাকাকালীন সময়ে কয়েক দফায় নগদ অর্থ ও সম্পদ মিলিয়ে ৭ লক্ষ ৬৯ হাজার ৫৫০ টাকা আত্মসাত করে।

     

    বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়। বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটি ১ম পর্যায়ে আত্মসাতকৃত ৪ লক্ষ ৬২ হাজার ৭৫০ টাকা ব্যাংকে জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। আব্দুস সালাম ৩০০ টাকার ষ্ট্যাম্পে অঙ্গীকার নামা সম্পাদন করেও নির্ধারিত সময়ে মাত্র ১ লক্ষ টাকা জমা দেন। বাকী টাকা জমা দিতে অস্বীকার করেন। এরপর আড়াই লক্ষ টাকা মূল্যের ৫টি কম্পিউটার,  প্রতিষ্ঠানের ৫টি বৈদ্যুতিক ফ্যান বাড়ীতে নিয়ে যান। এরপর ২০১৫ সালের নবম শ্রেণির ছাত্রীদের নিকট হতে বোর্ড এর প্রাকটিক্যাল ফি বাবদ আদায় করা ৯৭ হাজার টাকা ২০১৬ সালের এসএসসি’র পরীক্ষার্থীদের নিকট থেকে কেন্দ্র ফি বাবাদ আদায় করা ৪৪,৮০০ টাকা সহ সর্বমোট ৭,৬৯, ৫৫০ টাকা আত্মসাত করেন।

     

    এ প্রেক্ষিতে গত ১৫/২/২০০৬ তারিখে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটি তাকে চাকুরী হতে বরখাস্ত করে এবং তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের সিদ্ধান্ত গ্রহন করে। সে  মোতাবেক ভারপ্রাপ্ত সুপার মো: আবু হাসান আদালতে তার বিরুদ্ধে ৪০৬ ও ৪২০ ধারায় মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিসেট্রট মামলার শুনানী ও তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর সম্প্রতি গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেন। পুলিশ মঙ্গলবার ভোর রাতে তার নিজ বাড়ী শুভগাছা গ্রাম থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। তাকে আদালতে হাজির করার পর বিজ্ঞ ম্যজিষ্ট্রেট তার জামিনের আবেদন নাকচ করে তাকে হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন। এব্যাপারে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হাসান সিদ্দিকী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সিরাজগঞ্জ ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৭:৪১ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 412 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    সিরাজগঞ্জ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    7987628
    ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৯:৩৬ পূর্বাহ্ন