সিরাজগঞ্জ-৩ আসনে ডা.আব্দুল আজিজে মনোনয়নে উজ্জীবিত আ’লীগ
২২ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন


  

  • তাড়াশ/ রাজনীতি:

    সিরাজগঞ্জ-৩ আসনে ডা.আব্দুল আজিজে মনোনয়নে উজ্জীবিত আ’লীগ
    ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৫:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    আশরাফুল ইসলাম রনি:

    আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া ঢাকা শিশু হাসপাতালের পরিচালক ডা. আব্দুল আজিজকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী করতে দলীয় ভেদাভেদ ভুলে একজোট হয়ে কার্যক্রম শুরু করেছেন সিরাজগঞ্জ-৩ (তাড়াশ-রায়গঞ্জ ও সলঙ্গা) আসনের দলীয় নেতা-কর্মীরা।

     

     

    ডা.আব্দুল আজিজ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়ায় উজ্জীবিত এ আসনের আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা।

    এ আসনটিতে গত কয়েকদিনে তাড়াশ-রায়গঞ্জ ও সলঙ্গার সব কয়েকটি ইউনিয়নে বর্ধিত সভা, পথসভা, উঠান বৈঠক ও কর্মী সমাবেশ করে যাচ্ছেন তিনি। নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে নির্বাচনী উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে।

    অপরদিকে, ঢাকা শিশু হাসপাতালের পরিচালক ডা.আব্দুল আজিজ নির্বাচনী এলাকা তাড়াশ-রায়গঞ্জ ও সলঙ্গার জনগণের কাছে একজন সাদা-মনের মানুষ হওয়ায় সবার চেয়ে জনপ্রিয়তায় র্শীষে অবস্থান করছেন।

    বিভিন্ন পথসভা, উঠান বৈঠক ও কর্মী সমাবেশে দেখা যায়, শত ব্যস্ততার মাঝেও মানুষের আস্তাভাজন ডা. আব্দুল আজিজ কখনো মঞ্চে কখনো গাড়ীতে বসেই হত-দরিদ্র মানুষের চিকিৎসা প্রদান করছেন। তিনি যে এলাকায় যাচ্ছেন সেখানে শতশত শিশু, বৃদ্ধসহ বিভিন্ন বয়সের রোগীরা অপেক্ষা করেন।

    তাড়াশ উপজেলা যুবমহিলা লীগের সভাপতি শায়লা পারভীন জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে নৌকার কাণ্ডারী তৃণমুলের আস্থাভাজন ডা. আব্দুল আজিজকে মনোনয়ন দেয়ায় দলীয় নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত। এ আসনের একমাত্র নৌকার কাণ্ডারী হিসেবে সাদা মনের মানুষকে বিপুল ভোটে জয়ী করতে ঐক্যবদ্ধ সকল নেতাকর্মীরা।

    উপজেলার নওগাঁ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান মজনু সরকার বলেন, এর আগে আমরা কখনো এমন ক্লিন ইমেজের প্রার্থী পাইনি। প্রধানমন্ত্রী একজন সৎ ও যোগ্য ব্যাক্তিকে মনোনীত করায় আমরা তৃণমুলের নেতাকর্মীরা অনেক খুশি। আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা এ আসনে নৌকাকে বিজয়ী করে শেখ হাসিনা উপহার দেব।

    প্রসঙ্গত, গত ২০০৮ সালে বিএনপির প্রার্থী আবদুল মান্নান তালুকদারকে পরাজিত করে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ইসহাক হোসেন তালুকদার বিপুল ভোটে এ আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৫ সালে ইসহাক হোসেন তালুকদারের মৃত্যু আসনটি শূন্য হলে উপ-নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন গাজী ম.ম. আমজাদ হোসেন মিলন।

    স্টাফ করেস্পন্ডেন্ট, তাড়াশ ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৫:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 336 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    তাড়াশ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    8474250
    ২২ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন