রাজশাহীতে প্রতীক নিয়ে ভোটের মাঠে ২৫ প্রার্থী
১৭ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৬:০৬ অপরাহ্ন


  

  • উত্তরবঙ্গ/ রাজনীতি:

    রাজশাহীতে প্রতীক নিয়ে ভোটের মাঠে ২৫ প্রার্থী
    ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৫:৪২ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    প্রচারের প্রথম দিনেই প্রতীক নিয়ে ভোটের মাঠে মেনে পড়েছেন রাজশাহীর ছয়টি আসনে ২৫ প্রার্থী। সোমবার সকাল ১০টা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেন রাজশাহীর রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদের।

    প্রতীক পাওয়ার পর থেকে প্রচার কার্যক্রম শুরু করে দেন প্রার্থীরা। আগে থেকে দলীয় প্রতীক জানা থাকায় পোস্টার ফেস্টুন ও ব্যানার তৈরি করা ছিল তাদের। প্রতীক বরাদ্দের পর সেগুলো টাঙ্গানো শুরু হয়। বিকেলের মধ্যে নির্বাচনী এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো ছেয়ে যায় পোস্টার, ফেস্টুন আর ব্যানারে। দুপুরের পর থেকে শুরু হয় মাইকিং।

     

    শুরুতেই রাজশাহীর সবকটি আসনে মহাজোট ও ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে শক্ত লড়াই হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। এক্ষেত্রে আগে থেকেই মাঠ গুছিয়ে রাখায় এখানে সব আসনে সুবিধায় রয়েছে আওয়ামী লীগ। তবে ১০ বছর পর ভোটের মাঠে নেমে চাঙ্গা হয়ে উঠেছে বিএনপি।


    রাজশাহীর হেভিওয়েট প্রার্থীদের মধ্যে রাজশাহী-১ আসনে নৌকার প্রতীক পান ওমর ফারুক চৌধুরী। আর ধানের শীষ প্রতীক পান সাবেক মন্ত্রী ব্যারিষ্টার আমিনুল হক। রাজশাহী-২ আসনে ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা ফজলে হোসেন বাদশাকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়। আর ধানের শীষ প্রতীক পান মিজানুর রহমান মিনু। রাজশাহী-৩ আসনে আয়েন উদ্দিন এমপি নৌকা, শফিকুল হক মিলন ধানের শীষ, রাজশাহী-৪ আসনে প্রকৌশলী এনামুল হক এমপি নৌকা, সাবেক এমপি আবু হেনা ধানের শীষ, রাজশাহী-৫ আসনে ডা. মনসুর রহমান নৌকা ও সাবেক এমপি নাদিম মোস্তফা ধানের শীষ এবং রাজশাহী-৬ আসনে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নৌকা ও আবু সাঈদ চাঁদ ধানের শীষ প্রতীক পেয়েছেন। এ ছাড়াও ইসলামী আন্দোলনের ছয়টি আসনের ছয়জন প্রার্থী প্রতীক পেয়েছেন হাত পাখা।


    সদর আসনের মহাজোটের প্রার্থী ফজলে হোসেন বাদশা নিজে গিয়ে প্রতীক সংগ্রহ করেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনসহ আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টিসহ মহাজোটের নেতাকর্মীরা। প্রতীক নিয়ে জেলা প্রশাসনের সামনে থেকে তারা প্রচার শুরু করেন। 
    আর রাজশাহী-১ ও ৩ আসনের মিজানুর রহমান মিনু এবং শফিকুর হক মিলনের পক্ষে ধানের শীষ প্রতীক সংগ্রহ করে সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। আর রাজশাহী-১ আসনের ধানের শীষের প্রতীক নিজে গ্রহণ করেন ব্যারিস্টার আমিনুল হক।

    রাজশাহীর ছয়টি আসনে ২৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনে আওয়ামী লীগের ওমর ফারুক চৌধুরী এমপি, বিএনপির সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হক, ইসলামী আন্দোলনের আব্দুল মান্নান, বাসদের আফজাল হোসেন।
    রাজশাহী-২ (সদর) আসনে মহাজোটের ফজলে হোসেন বাদশা এপি, বিএনপির সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিনু, ইসলামী আন্দোলনের ফয়সাল হোসেন, সিপিবির এনামুল হক।
    রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনে আওয়ামী লীগের আয়েন উদ্দিন, বিএনপির শফিকুল হক মিলন, ইসলামী আন্দোলনের ফজলুর রহমান, বিএলডিপি মনিরুজ্জামান, সাম্যবাদী দলের সাজ্জাদ আলী।

    রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনে আওয়ামী লীগের প্রকৌশলী এনামুল হক এমপি, বিএনপির সাবেক এমপি আবু হেনা ও ইসলামী আন্দোলনের তাজুল ইসলাম খান।
    রাজশাহী-৫ (পুঠিয়া-দুর্গাপুর) আসনে আওয়ামী লীগের ডা. মনসুর রহমান, বিএনপির সাবেক এমপি নাদিম মোস্তফা, জাতীয় পার্টির আবু হোসেন, ইসরামী আন্দোলনের রুহুল আমিন, জাকের পার্টির শফিকুল ইসলাম।
    রাজশাহী-৬ (চারঘাট-বাঘা) আসনে আওয়ামী লীগের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি, বিএনপির আবু সাঈদ চাঁদ, ইসলামী আন্দোলনের আব্দুস সালাম সবুজ ও জাতীয় পার্টির ইকবাল হোসেন।

    নিউজরুম ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৫:৪২ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 127 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    উত্তরবঙ্গ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    8408945
    ১৭ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৬:০৬ অপরাহ্ন