উল্লাপাড়ায় বিনামূল্যের পাঠ্য বই জিম্মি করে ভর্তি ও সেশন ফি আদায়
১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৪:৫৫ পূর্বাহ্ন


  

  • উল্লাপাড়া/ অপরাধ:

    উল্লাপাড়ায় বিনামূল্যের পাঠ্য বই জিম্মি করে ভর্তি ও সেশন ফি আদায়
    ২০ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৫:১১ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    রায়হান আলীঃ  সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় মাধ্যমিক স্কুল গুলোতে সরকারী  বিনামূল্যের পাঠ্য বই জিম্মি করে ভর্তি ও সেশন ফি বানিজ্য চলছে । প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  ১লা জানুয়ারীতে বই উৎসবের মাধ্যমে সকল শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যের সরকারি পাঠ্য বই তুলে দেওয়ার নির্দেশনা থাকলেও তা আমলে নিচ্ছে না প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষরা ।

     সরকারী নীতিমালা অনুযায়ি উপজেলা পর্যায়ের এমপিও ভুক্ত, আংশিকভাবে  এমপিও ভুক্ত  এবং এম. পি. ও. বহির্ভুত সকল মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে ভর্তি ও সেশন ফি সহ সর্বসাকুল্যে পৌর এলাকার জন্য ১০০০ টাকা এবং মফস্বল এলাকার জন্য ৫০০ টাকা এবং সরকারী স্কুলের জন্য ১ হাজার ১০৫ টাকা নিধারন করা রয়েছে । কিন্তু সরকারী এ নির্দেশনাকে অগ্রাহ্য করে  ভর্তি ও সেশন ফির নামে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে উল্লাপাড়া মোমেনা আলী বিজ্ঞান স্কুল ৪ হাজার ২৫০ টাকা,  উল্লাপাড়া আদর্শ স্কুল ১ হাজার ৫০০ টাকা এবং মফস্বল এলাকার হাজী আমিরুল ইসলাম উচ্চ বিদ্যালয় ১ হাজার টাকা, কে এম ইনস্টিটিউশন উচ্চ বিদ্যালয় ১ হাজার টাকা, কয়ড়া স্কুল এন্ড কলেজ ৯৫০ টাকা, গয়হাট্রা সালেহা ইসহাক উচ্চ বিদ্যালয় ৯০০ টাকা ও উল্লাপাড়া মার্চেন্টস পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় ১হাজার ৪ শত টাকা এবং অলিপুর আমডাঙ্গা স্কুল এন্ড কলেজে পাঠ্য বই জিম্মি করে বেতন ও অতিরিক্ত টাকাদায় করেছে । এ ছাড়াও উপজেলার মফস্বল এলাকায় মাধ্যমিক স্কুল গুলো একই হারে ভর্তি ও সেশন ফি আদায় করছে । 

          
        নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আভিভাবকেরা বলছেন স্বচ্ছল পরিবারের শিক্ষার্থীরা টাকা দিয়ে ভর্তি হয়ে নতুন বই পেলেও অস্বচ্ছল পরিবারের শিক্ষার্থীরা অতিরিক্ত ভর্তি ও সেশন ফির কারনে ফি দিয়ে ভর্তি হতে না পেরে, এখনো নতুন বই হাতে পায়নি । সর্বোচ্চ ফি নিচ্ছে উল্লাপাড়া মোমেন আলী বিজ্ঞান স্কুল এবং স্কুলটি কোচিং ফির নামে হাতিয়ে নিচ্ছে হাজার হাজার টাকা । প্রতিবাদ করার কেও সাহস পায় না। 
             
       উল্লাপাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. মারুফ বিন হাবিব বলেন   উল্লাপাড়া মোমেন আলী বিজ্ঞান স্কুল  প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকেই অতিরিক্ত ভর্তি ও সেশন ফি এবং সেই সাথে কোচিং ফি বেশী নিচ্ছেন । এখনো সেটা চালু রয়েছে । অভিভাবকেরা উল্লাপাড়া মোমেন আলী বিজ্ঞান স্কুলের বিরুদ্ধে  অতিরিক্ত  ভর্তি ও সেশন ফি ৩ হাজার ৫০ টাকা, মাসিক বেতন ১ হাজার ২০০ টাকা, কোচিং ফি ১ হাজার টাক সহ অন্যান্য স্কুলের অতিরিক্ত ভর্তি ও সেশন  ফি আদায়ের অভিযোগ নিয়ে এসেছেন এবং তা মৌকুফের সুপারিশ চেয়েছেন । শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো সরকারী পাঠ্য বই জিম্মি করে ফি আদায় করায় অস্বচ্ছল পরিবারের মেধাবি শিক্ষার্থীদের শিক্ষা গ্রহন থেকে নিরউৎসাহিত করছেন । 
       
         উল্লাপাড়া মোমেনা আলী বিজ্ঞান স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ রকিবুল ইসলাম জানান- বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হওয়ায় সরকারী কোনো অনুদান পাওয়া যায়না । স্কুলে যে পরিমান শিক্ষার্থী ভর্তি হয়, তার ৪০% শিক্ষার্থী  বৃত্তি পায় । তাই শিক্ষকদের বেতন পরিশোধ করবার জন্য কিছু বেশী ভর্তি ও সেশন ফি নেওয়া হয় । পাঠ্য বই জিম্মি করে ভর্তি ও সেশন ফি নেওয়ার অভিযোগ ভিত্তিহীন । 

    এ বিষয়ে উল্লাপাড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলাম জানান বই জিম্মি করে টাকা নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    এ ব্যাপারে এইচ টি ইমাম গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ, উল্লাপাড়া মার্চেন্টস পাইলট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আরিফুজ্জামান জানান অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী ব্যাবস্থা নেওয়া হবে৷

    করেসপন্ডেন্ট, উল্লাপাড়া ২০ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৫:১১ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 439 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    উল্লাপাড়া অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    8817792
    ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৪:৫৫ পূর্বাহ্ন