সিরাজগঞ্জে বোরো ধান চাষে কোমরবেঁধে মাঠে নেমেছেন চাষিরা
১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৩:২৫ অপরাহ্ন


  

  • সিরাজগঞ্জ/ কৃষি ও খাদ্য:

    সিরাজগঞ্জে বোরো ধান চাষে কোমরবেঁধে মাঠে নেমেছেন চাষিরা
    ২৪ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৬:৩৭ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    সোহাগ হাসান জয়ঃ সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলায় বোরো ধানের চারা রোপণে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষক। সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত চারা সংগ্রহ, হালচাষ,মই,সেচ, রোপণ কাজে মাঠে থাকছেন চাষীরা। কৃষকরা উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে দেশী ধানের চেয়ে প্রাধান্য দিচ্ছেন হাইব্রিড ও উচ্চ ফলনশীল ধানকে। বিগত বোরো ও আমন মৌসুমে ধানের বাম্পার ফলন ঘরে তোলায় এবার বেশ ফুরফুরে মেজাজ নিয়ে বোরো আবাদে মাঠে ব্যস্ত সময় পার করছেন এখানকার কৃষকরা।  রায়গঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানা যায়, ৯টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত এই উপজেলায় চলতি বোরো মৌসুমে ১৯ হাজার ৪'শ হেক্টর জমিতে বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে প্রায় ১০ হাজার হেক্টর বোরো ধান চাষে চারা রোপন সম্পন্ন হয়েছে।


    অত্র উপজেলার ব্রম্মগাছা ইউনিয়নের চাঁদপুর গ্রামের চাষী আব্দুল খালেক,আব্দুল মমিন,আকবার আলী,পলান সেখসহ আরও অনেকেই জানান,কৃষকরা চারা রোপণে ব্যস্ত। তবে মাত্রাতিরিক্ত ইটভাটা থাকার ফলে যেমনটা কমেছে ফসলি জমির পরিমান ঠিক সেই পরিমাপে শ্রমিক সংকট থাকায় জমি চাষাবাদে বেগ পেতে হচ্ছে। এবারের বোরো মৌসুমে বিদেশি ধান বেশি রোপণ করা হচ্ছে। প্রকৃতির সহায় হলে গত বছরের মতো এ বছর ফসল ভালো হবে বলে জানান তাঁরা। তবে গত বোরো মৌসুমে বাম্পার ফলন হওয়ায় এখানকার কৃষকরা আবারও বোরো আবাদে মাঠে কোমরবেঁধে নেমেছেন।
    উপজেলার বিভিন্ন মৌজায় পানি ও সেচ সমস্যার কথা জানিয়ে অনেকে বলেন, বর্তমান কৃষিবান্ধব সরকার কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে বিভিন্ন সময়ে নানা ধরনের উদ্যোগ গ্রহন করেছে। অন্যান্য সময়ের মতো এবারও এখানকার পানি সমস্যা সমাধানে এগিয়ে আসলে এবার বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলে অনেকেই দাবী করেন।


    উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাজমুল হক মন্ডল জানান,এখানকার কৃষকরা গত বছর ফসলের ভাল ফলন ও দাম পেয়েছেন। তাই চলতি মৌসুমে অনেকটা আগে ভাগেই বোরো চাষে পুরো প্রস্ততি নিয়ে মাঠে নেমেছেন। ইতিমধ্যে লক্ষ্যমাত্রার প্রায় ৫০ শতাংশ জমিতে ধানের চারা লাগানো শেষ হয়েছে। আমরা এ বছর বোরো আবাদের ও নতুন জাত সম্প্রসারনের জন্য কয়েক শতাধিক কৃষককে প্রণোদনা সুবিধার আওতায় বিনামূল্যে বীজ ও সার প্রদান করেছি। এছাড়াও আমাদের বিভাগীয় পদর্শনীর আওতায় কৃষকদের বিনামূল্যে বীজ সার ও অনান্য উপকরণ বিতরণ করেছি।
    তাছাড়াও আমাদের পরামর্শ সেবা অব্যাহত আছে আমরা ধান কর্তনের শেষ পর্ষন্ত কৃষকদের সাথে থেকে পরামর্শ সেবা অব্যাহত রেখে যাতে ভাল ফলন তুলে আনা যায় সেজন্য কাজ করে যাচ্ছি। কৃষকরা যাতে নিরাপদের ধান তুলতে পারে সেজন্য পানি উন্নয়ন বোর্ড সহ সবগুলো দপ্তরের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে যাচ্ছি। এবারও লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সিরাজগঞ্জ ২৪ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৬:৩৭ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 131 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    সিরাজগঞ্জ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    8837274
    ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৩:২৫ অপরাহ্ন