সায়দাবাদ-এনায়েতপুর সড়ক ২৪ কোটি টাকার সংস্কার কাজের নেই গতি, ধূলাবালিতে অতিষ্ট জনজীবন
২৬ মে, ২০১৯ ০৮:১৯ অপরাহ্ন


  

  • বেলকুচি/ জনদুর্ভোগ:

    সায়দাবাদ-এনায়েতপুর সড়ক ২৪ কোটি টাকার সংস্কার কাজের নেই গতি, ধূলাবালিতে অতিষ্ট জনজীবন
    ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৫:২৭ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    জহুরুল ইসলামঃ তাঁত সমৃদ্ধ সিরাজগঞ্জের (সায়দাবাদ - এনায়েতপুর) আঞ্চলিক সড়কটি অতি ব্যস্ত জনপদ হিসাবে সাড়া দেশে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছে। এর অন্যতম কারণ হিসাবে বিবেচিত হয় এই এলাকার তাঁত শিল্পের প্রসার। দেশের যেকোন প্রান্তে গিয়ে নাম শোনা যায় এ এলাকার। এছাড়াও রয়েছে এশিয়ার অন্যতম বৃহত্তর খাঁজা ইউনুস আলী হসপিটাল। খ্যাতি ও নাম জস হওয়ার ধরুন এই অঞ্চলিক সড়ক দিয়ে যাতায়াত করতে হয় রোগী ও চিকিৎসকদের। তাছাড়াও রয়েছে সড়কের পার্শ্ববর্তী বেশ কয়েটি বানিজ্যিক প্রতিষ্ঠান, হাট-বাজার ও সরকারী-বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। প্রতিদিন এই সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে ট্রাক, বাস, সিএনজি, অটোভ্যান, রিক্সা, মোটর সাইকেলসহ ইত্যাদি যানবাহন। দির্ঘ দিন যাতাযাতে দূর্ভোগ কাটানোর জন্য সরকার ২৪ কোটি টাকা ব্যায়ে সড়কের সংস্কার কাজ চললেও নেই কাজের কোন গতি। বিভিন্ন স্থানে রাস্তার কার্পেটিং খুরে বালি বের করে রেখেছে। এতে যানবাহন চলাচলের সময় ধুলোবালি উড়তে দেখা যায়। ধুলোবালি নাক-মুখ দিয়ে মানবদেহে প্রবেশ করে নানাবিধ সমস্যায় ভুগছে মানুষ। সড়ক দিয়ে ধূলাবালির কারনে ৫ ফুট দুরত্বে কি আছে তা চোখে দেখা যায় না। ধূলাবালিতে ঢেকে যায় সমস্ত জায়গা জুড়ে। মানুষ জন সড়ক দিয়ে চলাফেরা করতে গেলে নাকে মুখে ধূলাবালি দিয়ে ভরে যায়। অজ্ঞাত কারনে মাঝে মাঝে কোথাও কাজ করতে দেখা যায় না সড়কটির ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটিকে। পথচারী ও ভ্যান রিক্সায় চলাফেরা করা যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানা যায় তাদের ভোগান্তির কথা। তারা বলেন, রাস্তার কাজ হয় দেখেছি কিন্তু এতো ধীর গতিতে! নাকি রাস্তার কাজের নামে আমাদের সাথে পুতুল খেলছে। কিছু জায়গায় কাজ করে আবার সেটা শেষ না করে অন্য জায়গায় কাজ শুরু করে। নাকি ধূলাবালি খাইয়ে আমাদের মেরে ফেলার ফাঁদ তৈরি করেছে। আমরা দ্রুত এই ধূলাবালি থেকে মুক্তি চাই। বেলকুচি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার সাখায়াত হোসেন এই প্রতিবেদকে জানান, ধূলাবালির কারনে মানব দেহে বিভিন্ন ধরনের ক্ষতি সাধিত হতে পারে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো নাক দিয়ে ধূলাবালি প্রবেশের ফলে ফুসফুসে ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে।
    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বেলকুচি ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৫:২৭ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 458 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    বেলকুচি অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    9997151
    ২৬ মে, ২০১৯ ০৮:১৯ অপরাহ্ন