জামাতার নির্বাচনী ক্যাম্প ভাঙ্গার অভিযোগ আ'লীগ সভাপতি শ্বশুরের দিকে: হামলায় আহত-৫ (ভিডিও সহ)
২৪ মার্চ, ২০১৯ ০৫:৩৮ পূর্বাহ্ন


  

  • বেলকুচি/ রাজনীতি:

    জামাতার নির্বাচনী ক্যাম্প ভাঙ্গার অভিযোগ আ'লীগ সভাপতি শ্বশুরের দিকে: হামলায় আহত-৫ (ভিডিও সহ)
    ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৬:১৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    জহুরুল ইসলামঃ সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের হামলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী ক্যাম্প ও সমর্থকদের বাড়ী ঘর ভাংচুর করার অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর শ্বশুর সাবেক মন্ত্রী, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ বিশ্বাসকে অভিযুক্ত করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী তার জামাতা নূরুল ইসলাম সাজেদুল ও তার স্ত্রী সোমা বিশ্বাস। তবে এ বিষয়ে অভিযুক্ত আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের সাথে কথা বলার চেষ্টা করা হলেও তার মোবাইল নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়। বুধবার রাতে দুই দফায় ভাংচুরে ঘটনায় স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল ইসলাম সাজেদুলের নির্বাচনী ক্যাম্প ও সমর্থকদের বাড়ী ঘর ভাংচুর সহ মোট পাচ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটে উপজেলার আজুগড়া জামতৈল এলাকায় দোয়াত কলম প্রতীকের নির্বচনী ক্যাম্পে। বুধবারে হামলার ঘটনায় আহত সেকেন্দার আলী (৪৫) অভিযোগ করে জানান, দুপুরে প্রথম দফায় আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের ছেলে মিঠু ও লাজুক বিশ্বাস লোকজন নিয়ে এসে নির্বাচনী ক্যাপ বন্ধ করার কথা বলে। ক্যাম্প বন্ধ করা না হলে এ অঞ্চলের কাউকে ভোট দিতে দেওয়া হবে না বলেও হুমকি দেয় তারা। পরে সন্ধ্যায় আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের উপস্থিতিতে তার ছেলে ও দলবল মিলে প্রথমে অফিস ভাংচুর ও পড়ে আমাকে ও আমার স্ত্রী শাহিনুর খাতুন (৩৫) সহ আব্দুল হাকিম মন্ডল, বাবু মন্ডল, কালু কে মারধর করে। এ সময় তারা নির্বাচনী ক্যাম্প ভাংচুর করে ও পাশের শুক্কুর আলীর চা ষ্টল ভাংচুর করে। পড়ে স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। বুধবার রাতেই স্বতন্ত্র প্রার্থী নুরুল ইসলাম সাজেদুল অভিযোগ করে জানান, নির্বাচনের মাঠে নামার পর থেকেই নির্বাচনী সব কাজেই বাধা দিয়ে আসছে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সহ তার কর্মী সর্মথকেরা। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করা হয়েছে। ভাংচুর ও মারধরে বিষয়ে স্থানীয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যে তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। নির্বাচনে তার পক্ষে জোয়ার থাকায় নিজের পছন্দের প্রার্থীকে জেতাতেই তিনি বিরোধিতা করছেন। জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের মেয়ে সোমা বিশ্বাস অভিযোগ করে জানান, তার বাবা আওয়ামীলীগের সভাপতি হয়ে নৌকার পক্ষে ভোট না চেয়ে অন্য একজন বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে কাজ করছেন। যে কারনে তার স্বামীর সমর্থকদের অফিস বাড়িঘর ভাংচুর ও মারধোর করেছে। বিষয়টি তারা আইনীভাবে দেখার জন্য ইতিমধ্যেই থানায় অবিহত করেছেন বলেও জানান। বেলকুচি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানায়, ঘটনার পরপর সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোন প্রকার অস্থিতিশিল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে দেয়া হবেনা। তাই জেলা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ফোর্স মোতায়েন থাকবে। উল্লেখ্য এ উপজেলা পরিষদ নির্বচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসাবে নৌকা মার্কায় নির্বাচন করছেন মোহাম্মদ আলী আকন্দ, বিদ্রোহী প্রার্থী আনারস মার্কায় সিরাজুল ইসলাস ও স্বতন্ত্র প্রার্থী দোয়াত কলম মার্কায় নুরুল ইসলাম সাজেদুল প্রতিদ্বন্দিতা করছেন।
    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বেলকুচি ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ ০৬:১৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 637 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    বেলকুচি অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    9218494
    ২৪ মার্চ, ২০১৯ ০৫:৩৮ পূর্বাহ্ন