বাচ্চা প্রসবের ২৬ দিন পর আরো দু’টি বাচ্চা
২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ০৬:৫৭ পূর্বাহ্ন


  

  • জাতীয়/ অন্যান্য:

    বাচ্চা প্রসবের ২৬ দিন পর আরো দু’টি বাচ্চা
    ২৬ মার্চ, ২০১৯ ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন প্রকাশিত

    যশোরে ২৬ দিনের ব্যবধানে দু’দফায় সন্তান প্রসব করে তিন সন্তানের মা হলেন আরিফা সুলতানা ইতি। বিরল এ ঘটনার জন্ম দেয়া ইতি যশোরের শার্শা উপজেলার শ্যামলাগাছির সুমন বিশ্বাসের স্ত্রী।

    যশোরে একটি বাচ্চা প্রসবের ২৬ দিন পর আরো দুটি বাচ্চার জন্ম দিয়েছেন এক মা। চিকিৎসকদের অবাক করে দেওয়া এই মায়ের নাম আরিফা সুলতানা ইতি। তিনি যশোরের শার্শা উপজেলার শ্যামলাগাছি গ্রামের সুমন বিশ্বাসের স্ত্রী।

    সুমন বিশ্বাস জানান, গত মাসের শেষের দিকে তার স্ত্রী গর্ভধারণজনিত কারণে অসুস্থ্য হলে প্রথমে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ঘণ্টাখানেক থাকার পর চিকিৎসকরা তার স্ত্রীকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

    পরে ২৫ ফেব্রুয়ারি তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর সেখানে তার স্ত্রী একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। এর ২৬ দিন পর স্ত্রী আবারও অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তাকে যশোর শহরে বেসরকারি আদ্ব-দ্বীন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে আবারও তার স্ত্রী একটি ছেলে ও মেয়ে শিশুর জন্ম দেন। তিনটি বাচ্চাই সুস্থ্য আছে।

    ২৫ ফেব্রুয়ারি স্বাভাবিকভাবে একটি সন্তান জন্ম দেয়ার পর ২২ মার্চ তিনি সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে আরও দু’টি সন্তানের জন্ম দেন। প্রথমবার বাড়িতে স্বাভাবিকভাবে একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন। এরপর যশোর শহরের রেল রোডস্থ আদ্-দ্বীন হাসপাতালে একটি ছেলে ও একটি মেয়ে সন্তানের জন্ম দেন ইতি।

    জানা যায়, গর্ভবতী হওয়ার পর সাড়ে ছয় মাসের মাথায় ২৫ ফেব্রুয়ারির একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেন ইতি। জন্মের পর নবজাতক ও মা অসুস্থ হয়ে পড়লে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। এরপর প্রিম্যাচিউরড (অপরিণত) শিশুটিকে নিয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজের এনইউসিতে (নিউ নেটাল কেয়ার ইউনিট) রাখা হয়।

    খুলনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইতির পুনরায় আবারো আলট্রাসনোগ্রাফ করা হয়। তখন সনোগ্রাফি রিপোর্টে দেখা যায়, ইতির গর্ভে আরো দুটি সন্তান রয়েছে। ২২ মার্চ ইতিকে যশোর রেলরোড আদ্ দ্বীন হাসপাতালে আনা হলে সিজারিয়ান ডেলিভারির মাধ্যমে দুটি সন্তান প্রসব করানো হয়।

    আদ্ব-দ্বীন হাসপাতালের গাইনি চিকিৎসক শীলা পোদ্দার বলেন, ‘আমি এই প্রথম এ ধরণের একটি কেস দেখলাম। এর আগে আমি এমন ঘটনা দেখিনি এবং শুনিওনি। প্রথমে যখন ইতিকে নিয়ে আসা হয়, তখন আমরা বিষয়টি বুঝতে পারিনি।

    পরে অপারেশনের শেষ পর্যায়ে আমরা বুঝতে পারি যে উনার দুইটা জরায়ু, যার একটিতে একটি সন্তান, অন্যটিতে দুইটি সন্তান ছিল। যে জরায়ুতে একটি সন্তান ছিল, প্রথমে সেটি ডেলিভারি হয়েছিল। পরবর্তীতে আমাদের এখানে আনলে আরও দুইটি বাচ্চা ডেলিভারি হয়’।

    নিউজরুম ২৬ মার্চ, ২০১৯ ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 202 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    জাতীয় অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    9600021
    ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ০৬:৫৭ পূর্বাহ্ন