ফের রাজপথে পাটকল শ্রমিকরা, ধর্মঘট-অবরোধ
২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন


  

  • জাতীয়/ জনদুর্ভোগ:

    ফের রাজপথে পাটকল শ্রমিকরা, ধর্মঘট-অবরোধ
    ১৫ এপ্রিল, ২০১৯ ১২:০৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    ডেস্ক রিপোর্টঃ ৯ দফা দাবি আদায়ের লক্ষে সোমবার (১৫ এপ্রিল) রাষ্ট্রয়াত্ত পাটকলে উৎপাদন বন্ধ রেখে ভোর ৬টা থেকে টানা ৯৬ ঘণ্টার ধর্মঘট শুরু করেছে পাটকল শ্রমিকরা। এ কারনে সকাল ৮টা থেকে রাজপথ-রেলপথ অবরোধ করেছে তারা। এর ফলে খুলনার সঙ্গে রেলপথে যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

     

     

     

    গত ১২ এপ্রিল সন্ধ্যায় পিপলস গোল চত্বরের শ্রমিক সভা থেকে শ্রমিক নেতারা এ কর্মসূচি ঘোষণা দিয়েছেন। ৯ দফা দাবিকে কেন্দ্র করে গত ৬ এপ্রিল ঢাকায় বিজেএমসির প্রধান কার্যালয়ে দ্বিপক্ষীয় আলোচনা সভা সফল না হওয়ায় শুক্রবার বিআইডিসি রোডের পিপলস গোল চত্বরে ধর্মঘট, রাজপথ রেলপথ অবরোধ, বিক্ষোভ মিছিলসহ ৯ দিনের আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

     

    পাটকল শ্রমিকদের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে: ১৫, ১৬, ১৭ ও ১৮ এপ্রিল টানা ৯৬ ঘণ্টা উৎপাদন বন্ধ রেখে ধর্মঘট পালন ও প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত ৪ ঘণ্টা রাজপথ-রেলপথ অবরোধ। এরপর বিরতি দিয়ে ২৫ এপ্রিল প্রত্যেক মিলে শ্রমিক সভা এবং ২৭, ২৮ ও ২৯ এপ্রিল টানা ৭২ ঘণ্টা ধর্মঘট এবং প্রতিদিন সকাল ৭টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত ৬ ঘণ্টা রাজপথ-রেলপথ অবরোধ।

     

    এদিকে পাটকল শ্রমিকদের ধর্মঘট ও অবরোধের কারণে সোমবার ভোর ৬টা থেকে খুলনা রেল স্টেশন থেকে কোনও ট্রেন ছাড়েনি। ফলে যাত্রীরা স্টশনেই অবস্থান নিয়ে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। এ বিষয়ে খুলনা স্টেশন মাস্টার মানিক চন্দ্র সরকার জানান, সকাল ৬টা থেকে ট্রেন ছাড়া সম্ভব হয়নি। অবরোধ সকাল ৮টা থেকে শুরু হলেও যাত্রী ও ট্রেনের নিরাপত্তা চিন্তা করে ভোর ৬টা থেকেই ট্রেন ছাড়া বন্ধ রাখা হয়েছে। ফলে ভোর ৬টার কমিউটার, সাড়ে ৬টার কপোতাক্ষ এক্সপ্রেসে, সোয়া ৭টার রূপসা এক্সপ্রেস ছাড়া হয়নি। এছাড়া সকাল ৮টা ৪০ এ চিত্রা এক্সপ্রেস, ৯ টা ১০ এ রকেটসহ দুপুর ১২টা পর্যন্ত কোনও ট্রেনই ছাড়া সম্ভব হবে না।

     

    প্রসঙ্গত, জাতীয় মজুরি কমিশন-২০১৫ এর রোয়েদাদ, পাটক্রয়ের অর্থবরাদ্দ, বদলি শ্রমিক স্থায়ী করণ, অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক, কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের সব বকেয়া পরিশোধ, শ্রমিকদের প্রতি সপ্তাহে মজুরি পরিশোসহ বকেয়া মজুরি প্রদান, খালিশপুর ও দৌলতপুর জুট মিলের শ্রমিকদের বিজেএমসির অন্যান্য মিলের ন্যায় সব সুযোগ, সুবিধা প্রদানসহ ৯ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে গত কয়েক বছর ধরে আন্দোলন করে আসছে।

     

    সর্বশেষ চলতি মাসের ২, ৩ ও ৪ এপ্রিল দেশের সব পাটকলে একযোগে ৭২ ঘণ্টা ধর্মঘট ও ৪ ঘণ্টা করে রাজপথ ও রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে বিক্ষুদ্ধ পাটকল শ্রমিকরা। শ্রমিকদের ধর্মঘট ও অবরোধের কারণে মিলসহ শিল্পাঞ্চল খুলনা প্রায় অচল হয়ে পড়ে। ৯ দফা বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তে অটল থাকে পাটকলের শ্রমিকরা। এ সময় খুলনা যশোর মহাসড়কের পাবলা পুলিশ বক্স ভাঙচুর ও ৪ পুলিশ সদস্য আহত হওয়ার ঘটনা ঘটে। আন্দোলন চলাকালে ৩ এপ্রিল বিজেএমসির পক্ষ থেকে শ্রমিক নেতাদের আলোচনায় ডাকা হয়। ৬ এপ্রিল ঢাকায় বিজেএমসির কার্যালয়ে বিজেএমসির চেয়ারম্যান শাহ নাসিমের সঙ্গে ৯ দফা দাবি নিয়ে বৈঠকে বসেন পাটকল শ্রমিক লীগ নেতারা। সেই বৈঠককে শ্রমিকদের স্বার্থ আদায় না হওয়ায় বৈঠক থেকে বেরিয়ে যান শ্রমিক নেতারা। ৭ এপ্রিল বাংলাদেশ পাটকল শ্রমিক লীগ, রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল সিবিএ-নন সিবিএ নেতারা জরুরি বৈঠকে বসেন। বৈঠকে জাতীয় মুজরি কমিশন বাস্তবায়ন, প্রতি সপ্তাহে মুজরি প্রদান, বদলি শ্রমিকদের স্থায়ীকরণ, অবসরপ্রাপ্তদের সব বকেয়া পরিশোধের দাবিতে নতুন আন্দোলন কর্মসূচি পালন শুরু হয়।

    ডেস্ক রিপোর্টঃ ১৫ এপ্রিল, ২০১৯ ১২:০৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 178 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    জাতীয় অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট

    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    11083311
    ২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন