সাপাহারে শিশু পাচারকারী সন্দেহে যুবক আটক
২৫ মে, ২০১৯ ০৪:১২ অপরাহ্ন


  

  • উত্তরবঙ্গ/ অপরাধ:

    সাপাহারে শিশু পাচারকারী সন্দেহে যুবক আটক
    ২৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০৭:২৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    নওগাঁর সাপাহারে শিশু পাচারকারী সন্দেহে সোহাগ (২২) নামের এক যুবককে আটক করে থানা পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী। জানা গেছে, শনিবার বিকেল ৩ টার দিকে উপজেলার তিলনা ইউনিয়নের বাবুপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্র, চন্দুরা গ্রামের স্বপনের পুত্র মোহাম্মদ বিপ্লব (৭), রুবেলের পুত্র ফহিম (৬), রাব্বানীর পুত্র মাসুম (৬), রফিকুলের পুত্র আব্দুল্লাহ্ (৭) বাড়ির সামনে তার সহপাঠীদের সঙ্গে গ্রামের রাস্তার পাশে খেলা করার সময় এক অপরিচিত যুবক পানিখাকা নামক স্থান চিনিয়ে দেয়ার কথা ও বিস্কুট খাওয়াবে বলে ফুসলিয়ে গ্রাম থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে পানিখাকা পুকুরের কাছে নিয়ে যায়।

    সাথে থাকা চার শিশুর মধ্যে তিন জনকে ৫০ টাকার একটি নোট ধরিয়ে দিয়ে বলে তোমরা যাও গিয়ে ১০ টাকা দামের ৪ টা বিস্কুটের প্যাটেক নিয়ে এসো। এরই মধ্যে পাচারকারী যুবক ফোন দিয়ে কোথায় যেন এইভাবে কথা বলে, মোক্কেল পাওয়া গেছে। তখন সাথে থাকা ওই শিশু প্রশ্ন করে, মোয়াক্কেল কি? তখন যুবকটি বলে যাকে ফোন করলাম তার নাম মোয়াক্কেল। এদিকে ওই ৩ শিশু বিস্কুট নিতে গেলে দোকানদারের মনে প্রশ্ন ওঠে। তখন শিশুদের প্রশ্ন করে তোমরা টাকা কোথায় পেলে? জানতে চাইলে তারা সে ঘটনা খুলে বললে ঘটনাস্থলে থাকা শিশুটির মা তড়িৎগতিতে পানিখাকা নামক স্থানে গেলে মুখো মুখি হতেই যুবকটি সেখান থেকে পালিয়ে যায় এবং সেমসয় সাথে থাকা লোকজন ছেলেটিকে চিনে ফেলে। তার বাড়ি পাশ্ববর্তী গ্রাম দমদমায়।

    পরে সন্ধ্যায় সেই যুবকের বাড়িতে গ্রামের লোকজন অভিযুক্ত সোহাগ হোসেনকে প্রশ্ন করলে সে বলে, আমি তাদের ওখানে নিয়ে গেছি আম খাব বলে এবং বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কথা বলছে। অভিযুক্ত ছেলের এরূপ আচরণ সন্দেহজনক মনে হলে, এলাকাবাসী তাকে আটক করে। তার বাবা ঘটনার বিবরণ শুনে বলে তোমরা যা করার কর আমার কোন কিছু করার নেই । তখন গ্রামের মেম্বার রইচ উদ্দীন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহজাহান হোসেন কে ফোন করে বললে চেয়ারম্যান তাকে মেম্বারের জিম্মায় নিতে বলে। পরদিন রবিবার সকালে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। অভিযুক্ত যুবক দমদমা গ্রামের আইনালের ছেলে।

    এ বিষয়ে শিশুদের অভিভাবক স্বপণ, রুবেল অপরাধীর উপযুক্ত শাস্তি দাবি জানান। তবে এলাকাবাসী বলেন, এই যুবক অনেক অপরাধের সাথে জড়িত আছে। কিছুদিন আগে ছাগল চুরি, মোবাইল চুরি ও মাদক সেবনের দায়ে জেলে ছিল। সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শামসুল আলম শাহ্ বলেন, অভিযোগের ঘটনায় এলাবাসি ওই যুবককে থানায় দিয়েছে এবং এ বিষয়ে মামলা দায়ের হয়েছে।

    নিউজরুম ২৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০৭:২৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 88 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    উত্তরবঙ্গ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    9982299
    ২৫ মে, ২০১৯ ০৪:১২ অপরাহ্ন