কাজীপুরে সিডিউল না মেনে রাস্তার কাজ চলছে বাড়ছে চলাচলে ভোগান্তি
১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ০৪:১২ অপরাহ্ন


  

  • কাজিপুর/ অন্যান্য:

    কাজীপুরে সিডিউল না মেনে রাস্তার কাজ চলছে বাড়ছে চলাচলে ভোগান্তি
    ১১ অক্টোবর, ২০১৯ ১২:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    কাজীপুর  সংবাদদাতা ঃ কাজীপুরে সড়ক প্রসস্তকরণ ও পূনরায়  পাকা করণে কম্পেশন না করা,সিডিউল বহিভ’তভাবে  ধুলাবালি মিশ্রিত ঢালায়ের অভিযোগ উঠেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের উপর । এতে ঐ রাস্তার স্থায়িত্ব নিয়ে জন মনে সন্দেহ সৃষ্টি হয়েছে।পাশাপাশি নর্ধিারিত সময়ে কাজ শেষ  না হওয়ায় যাতায়াতকারি লোকজনের  সিমাহীন দূর্ভোগ বেড়েছে ।চলতি বছরের শুরুতে কাজীপুরের সিমান্তবাজারের সওজ রাস্তা থেকে চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়নের হাজরাহাটি মনসুর আলী পাকা রাস্তা  পর্যন্ত প্রায় ৬ কোটি টাকা বরাদ্দে সাড়ে আট কিঃ মিঃ রাস্তা ৮ মাস মেয়াদে শেষ করার নিমিত্বে  ডলি কনষ্টাকশন কাজীপুর এলজি ই ডি অফিস কর্তৃক চুক্তি বদ্ধ হয়।

     

    ১৮ ফিট প্রসস্ত  রাস্তাটি নির্ধরিত সময়ে মাত্র ২০ ভাগ কাজ শেষ করতে পেরেছে।ফলে এই রাস্তায় চলাচলকারি লোকজনের দূর্ভোগ বেড়েছে।কাজীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি  রাজু আহম্মেদ অভিযোগ করে জানান, রাস্তাটি নির্মাণের  শুরুতেই অনিয়মের আশ্যয় নেয়া হয়েছে।রাস্তাটির পুরনো কার্পেটিং তুলে অন্যত্র নিয়ে গুড়ো করার পর তা আবার ব্যবহার করার নিয়ম থাকলেও ঠীকাদার না করে কোন রকেমে দায়সারাভাবে রোলার করে দিচ্ছেন।রাস্তার দুই পাশ্বে তিন ফুট করে মাটি ফেলার নিয়ম থাকলেও এ রিপোর্ট লেখাপর্যন্ত  মাটি ফেলা হয়নি, ফলে স্থাপিত রেইজিং সামান্ন বৃষ্টিতে পানিতে ভেঙ্গে পড়ছে অপরদিকে  ভেঙ্গে পড়া স্থানে ইট খোয়া দিয়ে কোন রকমে রোলার করে  কার্পেটিংকরা হচ্ছে।

     

    কোন কোন স্থানে ইটের খোয়া ফেলে রোলার না করে তার উপর কার্পেটিং করা হচ্ছে। কার্পেটিং করার ক্ষেত্রে ৪০ মিলিঃ মিটার করার নিয়ম থাকলেও  কোন কোন স্থানে ২৫ মিঃ মিঃ করে করা হচ্ছে। বিভিন্ন ব্রীজের দুপার্শ্বে পুরাতন ইটখোয়া উঠিয়ে নূতন ইটখোয়া ব্যবহারের নিয়ম থাকলেও তা করা হয় নি। ফলে রাস্তাটি  ক্রাক হতে পারে বা সেটেল হয়ে দেবে যেতে পারে এবং স্থায়িত্ব খুব কম হবে বলে প্রকৌশলীদের কাজ থেকে জানা গেছে। এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী বাবলু মিয়াকে অবগত করা হলে  তিনি উল্টো ঠীকাদারের পক্ষ নিয়ে   অভিযোগসমুহ  কৌশলে  অপরদিকে গত ১০ অক্টোবর দূদকের পক্ষ থেকে একটি টিম রাস্তাটি পরিদর্শন করে গেছেন।  স্থানীয় লোকজন রাস্তাটির কাজ সঠিকভাবে বাস্তবায়নের জন্য সাবেক  মন্ত্রি মোহাম্মদ নাসিমের হস্থক্ষেপ কামনা করেছেন।

     

    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,কাজিপুর ১১ অক্টোবর, ২০১৯ ১২:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 382 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    কাজিপুর অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    12004373
    ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ০৪:১২ অপরাহ্ন