তাড়াশ উপজেলা বিএনপি’র পাল্টাপাল্টি আহবায়ক কমিটি গঠন
১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৭:১৩ অপরাহ্ন


  

  • তাড়াশ/ রাজনীতি:

    তাড়াশ উপজেলা বিএনপি’র পাল্টাপাল্টি আহবায়ক কমিটি গঠন
    ০১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০১:১৯ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    আশরাফুল ইসলাম রনি:
    সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলা বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)ও পাল্টাপাল্টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। একটি আহবায়ক কমিটি করে দেয় সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপি। এ দিকে ওই আহবায়ক কমিটিকে অবাঞ্চিত ঘোষনা ও পকেট কমিটি দাবী করে আরেকটি আহবায়ক কমিটি গঠন করেন তাড়াশ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর। এ নিয়ে তাড়াশ উপজেলা বিএনপিতে চলছে টানটান উত্তেজনা ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা।
    বিএনপি দলীয় সুত্রে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় ঘোষনানুযায়ী গত ২০ সেপ্টেম্বর তাড়াশ উপজেলা বিএনপির কমিটি বিলুপ্ত করে। পরে ১৫ই অক্টোবর সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে বসে তাড়াশের আট ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের মতামতে ভিত্তিতে উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি বেনজির আহমেদ শফি ও সাবেক যুবদল নেতা প্রভাষক সাইদুর রহমানকে সদস্য সচিব করে আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। তাতে ওই কমিটি নিয়ে তাড়াশে বিএনপির দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে দি¦ধা বিভক্তি দেখা দেয়। এ নিয়ে দলটি দুটি গ্রæপে বিভক্ত হয়ে পড়ে। উক্ত কমিটিকে বিতর্কীত দাবি করে আহবায়ক কমিটির বিপক্ষে অবস্থান নেয় সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর।
    অপরদিকে, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সরদার আফসার আলীর নেতৃত্বে পুরো দল আহবায়ক কমিটির পক্ষে অবস্থান নেয়। শুধু তাই নয় এই আহবায়ক কমিটিকে কেন্দ্র গত ৬ই নভেম্বর উল্লেখিত আহবায়ক কমিটির প্রথম মিটিং উপলক্ষ্যে জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ তাড়াশে আসার পথে খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর গ্রæপের অনুসারীরা জেলার নেতা-কর্মীর গাড়ি বহরে হামলা চালিয়ে প্রাইভেটকার ভাংচুর করে।
    এতে জেলা বিএনপির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মুন্সি জাহিদ আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ সুইট, তাড়াশ আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব সাঈদুর রহমান, সদস্য জিয়া রহমান সহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাড়াশ উপজেলা বিএনপির এক গ্রæপ অন্য গ্রæপকে দায়ী করছে।
    এ দিকে গত ৩০ নভেম্বর ওই আহবায়ক কমিটির বিরুদ্ধে খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর গ্রæপ তার বাসভবনে মিটিং ডেকে উপজেলা বিএনপি একাংশ মতামতের ভিত্তিতে বিএনপি সাবেক যুগ্নসম্পাদক জয়নাল আবেদীন মাহবুবকে আহবায়ক ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার আব্দুল বারিককে সদস্য সচিব করে পাল্টা আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করেছেন।
    এ প্রসঙ্গে উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক স.ম আফসার বলেন,সেলিম জাহাঙ্গীর যা করছে আর বলছে তা হলো পাগলের প্রলাপ ছাড়া কিছুই না। জেলার নেতৃবৃন্দ যা বলবেন সেটাই সঠিক সিদ্ধান্ত।
    এ বিষয়ে উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর বলেন, তারেক রহমান নির্দেশ দিয়েছেন মাঠে এসে তৃণমুলের মতামতের ভিত্তিতে কমিটির করার। কিন্তু জেলা বিএনপি তা না মেনে পকেট কমিটি করেছেন। তাই জনগনের কমিটি ও তৃণমুলের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আহবায়ক কমিটি করা হয়েছে।
    সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু জানান, জেলা বিএনপির অনুমোদিত কমিটি হলো বৈধ কমিটি। তাড়াশ উপজেলায় সেলিম জাহাঙ্গীর যে কমিটি করছেন সেটা অবৈধ কমিটি। এটা দলের ভাবমুর্তি নষ্ট করার জন্যই এমনটা করেছে। তাছাড়া সেলিম জাহাঙ্গীরের নেতৃত্বে জেলার নেতাদের ওপর হামলা ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হলে। তদন্তে তাড়াশ উপজেলার সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর, সাবেক সহ-সভাপতি আবু সাইদ ও তার ভাই সাইফুল ইসলাম দোষী প্রমানিত হয়। আর তাদের দলীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক বহিস্কারের সুপারিশ কেন্দ্রীয় বিএনপিকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।

     

    স্টাফ করেস্পন্ডেন্ট, তাড়াশ ০১ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০১:১৯ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 243 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    তাড়াশ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    12327384
    ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৭:১৩ অপরাহ্ন