সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ সিরাজগঞ্জের সব খবর, সবার আগেঃ SirajganjKantho.com

www.SirajganjKantho.com

সলঙ্গায় গৌতম হত্যার দায় স্বীকার করল মেহেদী
নিউজরুম এডিটর ১০-০১-২০১৯ ০১:২৯ পূর্বাহ্ন প্রকাশিতঃ প্রিন্ট সময়কাল Jan 22, 2019 05:21 AM

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা ডিগ্রি কলেজের পিয়ন গৌতম হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে মামলার অন্যতম আসামি মেহেদী হাসান সোহাগ (৩২)।

মঙ্গলবার বিকেলে সিরাজগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে মেহেদী। সলঙ্গা থানার মধ্যপাড়া ভরমোহনী গ্রামের মমতাজুল হকের ছেলে মেহেদী।

সলঙ্গা থানা পুলিশেল পরিদর্শক (তদন্ত) মো. হাবিবুল্লাহ বলেন, সোমবার রাতে সলঙ্গা বাজার থেকে মেহেদী হাসান সোহাগকে গ্রেফতার করা হয়। মঙ্গলবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। জবানবন্দী গ্রহণ করেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. হাবিবুল ইসলাম।

তিনি আরও বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে সোহাগ বেশকিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে। তবে তদন্তের স্বার্থে সেসব বিষয়ে বিস্তারিত কিছু বলা যাবে না।

গত বছরের ২৬ জুলাই সকালে নাটোর জেলার গুরুদাসপুর উপজেলার নয়াবাজার এলাকার একটি আম গাছ থেকে কলেজ পিয়ন গৌতমের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। মৃত্যুর কারণ নিয়ে সন্দেহ থাকায় পরিবারের আপত্তির মুখে সে সময় গৌতমের মরদেহ দাহ না করে সমাধি দেয়া হয়। পরে গৌতমের স্ত্রী স্বপ্না রানী সলঙ্গা কলেজের লাইব্রেরিয়ান হারুনুর রশিদ লেবুসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। সেই সঙ্গে পুনরায় ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ উত্তোলনে আদালতের কাছে আবেদন জানান। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালতের নির্দেশে ৩১ অক্টোবর পুনরায় গৌতমের মরদেহ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়।



১০-০১-২০১৯ ০১:২৯ পূর্বাহ্ন প্রকাশিত
http://sirajganjkantho.com/cnews/newsdetails/20190110012912.html
© সিরাজগঞ্জ কন্ঠ, ২০১৬     ||     A Flashraj IT Initiative