সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ সিরাজগঞ্জের সব খবর, সবার আগেঃ SirajganjKantho.com

www.SirajganjKantho.com

সিরাজগঞ্জে যুব উন্নয়ন সমিতির কার্যালয়ে সন্ত্রাসীদের হামলা ভাংচুর ও মালামাল লুট
নিউজরুম ২২-০৪-২০১৯ ১২:২২ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ প্রিন্ট সময়কাল Sep 19, 2019 05:32 AM

সোহাগ হাসানঃ  সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলী ইউনিয়নের খাগা উত্তরপাড়া যুব উন্নয়ন সমিতির কার্যালয়ে সন্ত্রাসীদের হামলায় ভাংচুর ও মালামাল লুটের ঘটনা ঘটেছে। সিরাজগঞ্জ সদর থানার অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গত ৭ এপ্রিল সকালে খাগা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সরকারি গাছ কোন নোটিশ ছাড়া বিক্রি করে দেয় স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবৃন্দ। পরে এই ঘটনায় গাছ কাটতে বাঁধা দেয় এলাকাবাসী। 

সেই কারণে একই এলাকার শাহারুদ্দিনের নেতৃত্বে আব্দুল্লা, আসলাম, আলামিন, আনোয়ার, সবুজ, তরিকুল, হাফিজুল, ওমর ফারুক সহ ২০/৩০ জন সন্ত্রাসীরা ১৪ এপ্রিল রাত ৮টার সময় খাগা যুব উন্নয়ন সমিতি কার্যালয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারী হামলা করে। এসময় সন্ত্রাসীরা সমিতি অফিসে থাকা ৪২ ইঞ্চি এলইডি টিভি, চেয়ার, টেবিল, আলমারী ভাংচুর এবং নগদ প্রায় ৪ লক্ষ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।
এ বিষয়ে খাগা যুব উন্নয়ন সমিতির সভাপতি মোঃ সাদ্দাম হোসেন বলেন, সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনাটি সিরাজগঞ্জ সদর থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। সদর থানার এস আই শামীম হোসেন ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেছে। তিনি আরোও বলেন, ঘটনার সময় হামলাকারীরা সমিতির কোষাধ্যক্ষ নাজমুল হোসাইনকেও হুমকি-ধামকি দেয়। এতে আমাদের প্রায় ৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। 
এই ঘটনার পরের দিন ১৬ এপ্রিল দুপুরে সমিতির সদস্য একই এলাকার মৃত আব্দুল ওয়াহাব আলীর পুত্র মোঃ তরিকুল ইসলাম (৩৫) এর বাড়ীতে হামলা চালিয়ে টিভি, চেয়ার, টেবিল, আলমারী, ফ্রিজ ভাংচুর করে। পরে ঘরে আলমারিতে থাকা নগদ প্রায় ৩ লক্ষ টাকা লুট করে নিয়ে যায়। 
মোঃ তরিকুল ইসলাম বলেন, হামলাকারীদের বাঁধা দিলে সন্ত্রাসী শাহারুদ্দিনের ছেলে মোঃ আব্দুল্লাহ হাতে থাকা রামদা দিয়ে আমাকে হত্যার উদ্দ্যেশে আমার মাথা লক্ষ করে কোপ মারে। এসময় আমি দৌড়ে পালিয়ে যায়। আমার আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী এসে আমাকে রক্ষা করে। সন্ত্রাসীরা আমাকে অশ¬ীল ভাষায় গালাগাল ও বেদম মারপিট করে এবং হত্যার হুমকি দিয়ে যায়। 
পরে আমি বাদী হয়ে সিরাজগঞ্জ জজ কোর্টে ১৪ জনকে আসামী করে ১৪৩/ ৪৪৮/ ৩৮০/ ৩২৩/ ৪২৭/ ৩৭৯/৩০৭/১১৪/৩৪ ধারায় একটি মামলা দায়ের করি।
এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবু দাউদ বলেন, ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরে দুই পক্ষকে থানা গোল ঘরে ডাকা হয়েছে। উভয়পক্ষ আসলে বিষয়টি মিমাংশার চেষ্টা করা হবে। 



২২-০৪-২০১৯ ১২:২২ অপরাহ্ন প্রকাশিত
http://sirajganjkantho.com/cnews/newsdetails/20190422122228.html
© সিরাজগঞ্জ কন্ঠ, ২০১৬     ||     A Flashraj IT Initiative