সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ সিরাজগঞ্জের সব খবর, সবার আগেঃ SirajganjKantho.com

www.SirajganjKantho.com

শিবগঞ্জের পল্লীতে অবৈধ ভাবে বসত বাড়ীর জায়গা দখল বাড়ি-ঘর ভাংচুর, স্বর্ণালংকার লুটপাট সহ ৩লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন
নিউজরুম ১৪-০৫-২০১৯ ১১:৫১ পূর্বাহ্ন প্রকাশিতঃ প্রিন্ট সময়কাল Jun 26, 2019 09:09 PM

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ শিবগঞ্জে পল্লীতে অবৈধ ভাবে বসত বাড়ীর জায়গা দখল বাড়ি ভাংচুর স্বর্ণলংকা  লুটপাট সহ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন, থানায় অভিযোগ। অভিযোগ সূত্রে জানা  যায়, উপজেলার ময়দানহাট্টা ইউনিয়নের কৃষক গোলজার রহমান , তার বসত বাড়ি সংলগ্ন  পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তিতে  দীর্ঘদিন যাবৎ শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোগ দখল করে আসছে। কিন্তু একই গ্রামের রুহুল আমিনগংদের সাথে ওই সম্পত্তি নিয়ে কিছুদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছে।  একপর্যায়ে সোমবার রুহুল আমিন ও সাবিন সরকার সহ কয়েক জন ব্যক্তি  তার বসত বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় বাড়িতে থাকা ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর করে, ৩ ভরী ওজনের স্বর্ণাংলকা ও নগদ ১ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায় এবং ইট দিয়ে ঘর নির্মাণ করতে থাকে। উক্ত সময়ে  কৃষক গোলজার কে মাঠে কাজ করতে দেখে রুহুল আমিন গং ধাওয়া করলে প্রাণ ভয়ে সে ঘটনাস্থল থেকে দৌড়ে প্রাণ রক্ষা করে। এ ব্যাপারে কৃষক গোলজার জানান, আমি পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত জমি দীর্ঘদিন যাবৎ ভোগ দখল করে আসছি। কিন্তু প্রতিপক্ষরা বেশ কিছুদিন যাবৎ তাদের বলে দাবী করায় স্থানীয় চেয়ারম্যান সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিকট শালিস দিলে তারা আপোষ মিমাংশা করে দেন। কিন্তু প্রতিপক্ষরা আপোষ মিমাংশার মেনে না নিয়ে তারা অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে আমার বাড়ি ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর, স্বর্ণলংকা সহ নগদ টাকা লুট করে প্রায়  সাড়ে তিন লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন করে। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই। এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ রুহুল আমিন বলেন, আমি আমার জায়গায় ঘর নির্মাণ করতে গেলে গোলজার রহমান আমাকে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ সহ মারপিটের হুমকি দেয়। তবে সে ভাংচুর এর কথা স্বীকার করেন এবং লুটপাটের ঘটনা অস্বীকার করেন। এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানার এসআই মোস্তাফিজার রহমান-২ বলেন, অভিযোগ পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি এবং বাড়ি নির্মাণ এর কাজ বন্ধ করে দিয়েছি। বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত উভয় পক্ষকে জমিতে যেতে নিধেষ করা হয়েছে। 



১৪-০৫-২০১৯ ১১:৫১ পূর্বাহ্ন প্রকাশিত
http://sirajganjkantho.com/cnews/newsdetails/20190514115153.html
© সিরাজগঞ্জ কন্ঠ, ২০১৬     ||     A Flashraj IT Initiative