সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ সিরাজগঞ্জের সব খবর, সবার আগেঃ SirajganjKantho.com

www.SirajganjKantho.com

উল্লাপাড়ায় ১০টি বৃহৎ পুকুর পুনঃখনন মাছ চাষে ভাগ্য বদলের স্বপ্ন দেখছে চাষীরা
নিউজরুম ২০-০৫-২০১৯ ০২:৫২ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ প্রিন্ট সময়কাল Oct 16, 2019 05:16 PM

রায়হান আলীঃ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় ১২ হেক্টর আয়তনের ১০টি পরিত্যক্ত পুকুর পুনঃখননের মাধ্যমে মাছ চাষের উপযোগী করে তোলা হয়েছে। খননকৃত এসব পুকুরে মাছ চাষ করে স্থানীয় হাজারো মৎস্যচাষী নিজেদের ভাগ্য বদলের স্বপ্ন দেখছেন। 

জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্বি প্রকল্পের আওতায় মৎস্য অধিদপ্তর এসব পুকুর পুনঃখনন করেছে। খননকৃত পুকুরগুলো হচ্ছে- বাঙ্গালা ইউনিয়নের কাকনদাস পুকুর পুনঃখনন,মোহনপুর ইউনিয়নের ছয় আটিয়া পুকুর পুনঃখনন,দূর্গানগর ইউনিয়নের কালিকাদহ পুকুর পুনঃখনন,উধুনিয়া ইউনিয়নের কোমল মরিচ পুকুর পুনঃখনন,বগুড়া পুকুর পুনঃখনন,গজাইল বড় চত্রা পুকুর পুনঃখনন,পূর্নিমাগাঁতী ইউনিয়নের ফলিয়া বিল পুকুর পুনঃখনন,রামকৃঞ্চপুর ইউনিয়নের ভট্রমাঝিরা হাট পুকুর পুনঃখনন,মোহনপুর ইউনিয়নের বদ্বনগাছা পুকুর পুনঃখনন,বড়পাঙ্গাসী ইউনিয়নের শৈলাগাড়ি বিল পুনঃখনন।

 এই পুকুরগুলো কিছুদিন আগেও ছিল পরিত্যক্ত। পানি থাকতো না। স্থানীয়রা এসব পুকুর ব্যবহারও করতে পারতো না। পুনঃখনন করায় পুকুরগুলোতে এখন  শত শত স্থানীয়রা   মাছ চাষ করে স্বাভলম্বী হবে। অন্যদিকে তারা পুকুরের পানিতে গোসল সহ প্রয়োজনীয় কাজ সারতে পারবে।

উপজেলার কাকনদাস পুকুরের সুফল ভোগী মোঃআবু হানিফ জানান,আমাদের এই পুকুরটি পরিত্যক্ত ব্যবহার অনুপোযী ছিল। পানি থাকতো না। গ্রামের মানুষ গোসল করতে দুর দুরান্তে ছুটতো। পুনঃখনন হওয়ায় পুকুরটির গভীরতা বেড়েছে। আমরা মাছ চাষ করতে পারবো।  গ্রামের শত শত মানুষ পুকুরে গোসল করতে পারবে। যেটা কিছুদিন আগেও আমরা চিন্তাও করতে পারিনি। একইভাবে উপজেলার অন্য পুকুরগুলো পুনঃখনন হওয়ায় স্থানীয়রা সমান সুবিধা পাবে। 

সোমবার উল্লাপাড়া উপজেলার ১০ পুকুর পুনঃখনন পরিদর্শন করেন জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্বি প্রকল্পের পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মোঃআলিমুজ্জামান চৌধুরি ও জেলা মৎস্য কর্মকতা মোঃমাহবুবুল হক সহ প্রকল্প বাস্তবায়ন সংশ্লিষ্টরা। তারা উপজেলার বাঙ্গালা ইউনিয়নের কাকনদাস পুকুর পুনঃখনন পরিদর্শ করে সেখানে মাছের পোনা অবমুক্ত ও পুকুরপাড়ে গাছ লাগিয়ে পুকুরটি উদ্ভোধন করে সুফল ভোগীদের দায়িত্বে তুলে দেন। 
 



২০-০৫-২০১৯ ০২:৫২ অপরাহ্ন প্রকাশিত
http://sirajganjkantho.com/cnews/newsdetails/20190520145253.html
© সিরাজগঞ্জ কন্ঠ, ২০১৬     ||     A Flashraj IT Initiative