সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ সিরাজগঞ্জের সব খবর, সবার আগেঃ SirajganjKantho.com

www.SirajganjKantho.com

জয়পুরহাটে প্রিয় নানাকে প্রকাশ্যে গলাকেটে খুন!
নিউজরুম ০৪-০৯-২০১৯ ০৬:৫৮ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ প্রিন্ট সময়কাল Apr 04, 2020 02:45 PM

জয়পুরহাটের সদর উপজেলায় প্রকাশ্যে তরকারি কাটা ধারালো বটি দিয়ে নানা বেলাল উদ্দিনকে (৬৮) গলাকেটে হত্যা করেছে নাতি বায়েজিদ হোসেন (১৮)। বুধবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার করিমনগর গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহত বেলালের মেয়ের ছেলে বায়েজিদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহত নানা বেলাল উদ্দিন ওই গ্রামের মৃত আজিজ উদ্দিনের ছেলে।

নাতি বায়েজিদ একই উপজেলার পার্শ্ববর্তী পারুলিয়া গ্রামের লিটন হোসেনের ছেলে। বায়েজিদের পরিবারের দাবি, বায়েজিদ একজন মানসিক ভারসাম্যহীন রোগী। তবে পুরোপুরি পাগল বলতে যা বুঝায় ঠিক তেমনটি নয়। নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত প্রায় ৯-১০ বছর ধরে বায়েজিদ নানার বাড়িতে থেকে (বসবাস করে) পার্শ্ববর্তী একটি মাদ্রাসায় লেখাপড়া করত। মাদ্রাসা থেকে গত বছর এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে বায়েজিদ অকৃতকার্য হয়।

 

মানসিক রোগী হলেও নানা ছিল তার খুব প্রিয়। বুধবার সকালে নানা বেলাল উদ্দিন বাড়িতে একা বসে কাজ করছিলেন। এ সময় নাতি বায়েজিদ হঠাৎ রান্না ঘর থেকে তরকারি কাটার বটি নিয়ে এসে তার নানাকে গলায় আঘাত করে। এতে গলাকেটে গেলে ঘটনাস্থলেই বেলাল উদ্দিন মারা যান। হত্যার পর তার মামী মাকছুদা বেগম বাইর থেকে বাড়ির ভেতরে ঢুকলে বায়েজিদ ওই রক্তাক্ত বটি নিয়ে তাকেও ধাওয়া করেন। ওই সময় তার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে ঘরের মধ্যে বৃদ্ধ বেলাল হোসেনের লাশ পড়ে থাকতে দেখে বায়েজিদকে আটক করে। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

 

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে রেজোয়ান হোসেন জয়পুরহাট সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলা দায়েরের পর বায়েজিদকে গ্রেফতার দেখানো হয়। পুলিশ বেলাল উদ্দিনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

 

রেজোয়ান হোসেন বলেন, বায়েজিদ তার বড় বোনের ছেলে। সে তার বাবার কাছেই থাকত। সে ছিল মানসিক ভারসাম্যহীন। তবে কি কারণে তার বাবাকে হত্যা করেছে সে তা তিনি বলতে পারেননি। এ ব্যাপারে জয়পুরহাট সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রায়হান হোসেন জানান, ঘটনাস্থল থেকে বায়েজিদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে তার মামা হত্যা মামলা দায়ের করেছে। এখন এ হত্যার পেছনের কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।



০৪-০৯-২০১৯ ০৬:৫৮ অপরাহ্ন প্রকাশিত
http://sirajganjkantho.com/cnews/newsdetails/20190904185838.html
© সিরাজগঞ্জ কন্ঠ, ২০১৬     ||     A Flashraj IT Initiative