সিরাজগঞ্জে কলেজ ছাত্রী ধর্ষন মামলা তুলে নিতে ও আদালতে স্বাক্ষ্য না দিতে ভাইকে মারপিট হাসপাতালে ভর্তি
১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:১৪ পূর্বাহ্ন


  

  • সিরাজগঞ্জ/ অপরাধ:

    সিরাজগঞ্জে কলেজ ছাত্রী ধর্ষন মামলা তুলে নিতে ও আদালতে স্বাক্ষ্য না দিতে ভাইকে মারপিট হাসপাতালে ভর্তি
    ০৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৪:৩০ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষনের ঘটনায় দায়ের করা মামলা তুলে নিতে ও আদালতে স্বাক্ষ্য না দিতে ছোট ভাইকে তুলে নিয়ে মারপিট করে আহত করেছেন আসামী ও তার পরিবারের লোকজনেরা। গুরুতর আহত কলেজ ছাত্রীর ছোট ভাই শুভ কে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই কলেজ ছাত্রীর পিতা আদিল সরকার বাদী হয়ে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৪/৫ আসামী করে সিরাজগঞ্জ জুডিসিয়াল আদালতে (কামারখন্দ) মামলা দায়ের (মামলার পিটিশন নং-৫১/১৯)। করেছেন। 

     

    আসামীরা হলেন, কামারখন্দ উপজেলার রায়দৌলতপুর ইউনিয়নের কয়েলগাতী গ্রামের আব্দুল গণীর ছেলে মাসুদ রানা সবুজ তার ভাই শাহীন রেজা, একই গ্রামের আবু বকর মন্ডলের ছেলে বাবু শেখ ও চৌবাড়ি গ্রামের নজরুল ইসলামের আব্দুল হাকিম সহ অজ্ঞাত ৪/৫ জন।

     

    মামলার অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৩ সালের  ৫ অক্টোবর কামারখন্দ উপজেলার রায়দৌলতপুর ইউনিয়নের কয়েলগাতী গ্রামের আব্দুল গণীর ছেলে মাসুদ রানা সবুজ বাড়ির পাশ্ববর্তী আদিল সরকারের মেয়েকে তার নিজ ঘরে জোর পূর্বক ধর্ষন করে। এঘটনায় কলেজ ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে কামারখন্দ থানায় ধর্ষন মামলা দায়েরে (মামলা নং জিআর-৫৫/১৩) করেন। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আসামী মাসুদ রানা সবুজকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। বর্তমানে মামলাটি বিচারাধীন রয়েছে। মামলাটি তুলে নিতে ও স্বাক্ষ্য দেয়া থেকে বিরত থাককে আসামী ও তার পরিবার ধর্ষিত ওই কলেজ ছাত্রীর পরিবারকে বিভিন্ন সময় হুমকী দিয়ে আসছে। গত ৪ সেপ্টম্বর এই মামলায় আদালতে স্বাক্ষ্য গ্রহনের দিন ধার্য্য ছিলো। আসামী ও তার লোকজন কলেজ ছাত্রী ও তার ছোট ভাই শুভকে অপহরন করে হত্যা করার উদ্দেশ্যে ওৎ পেতে থাকে। গত ৩ সেপ্টেম্বর বিকেলে শুভ ফুটবল খেলে বাড়িতে ফিরছিলো। এসময় আসামী মাসুদ রানা সবুজ ও তার লোকজন শুভকে তুলে নিয়ে পিটিয়ে আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়।
    এব্যাপারে কলেজ ছাত্রী বলেন, বাড়ির পাশ্ববর্তী মাসুদ রানা সবুজ আমার ঘরে ঢুকে আমাকে জোর পূর্বক ধর্ষন করে। তারা এতই প্রভাবশালী যে তাদের ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। ধর্ষনের ঘটনায় আমার পিতা মামলা করার পর থেকে তারা বিভিন্ন সময় আমাদের উপর নির্যাতন চালায়। মামলা তুলে নিতে হুমকী দেয়। আমি কলেজে ভর্তি হয়েছি তারা আমাকে ভয় দেখায়। তাদের কারনে আমি কলেজে যেতে পারি না। মামলায় স্বাক্ষ্য না দিতে ভয় দেখানোর জন্য আসামীরা আমার ভাইকে তুলে নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করে। আমার ভাই মারা গেছে যেনে তারা আমার ভাইকে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 
    কলেজ ছাত্রীর পিতা আদিল সরকার জানান, আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করা হয়েছে। এঘটনায় মাসুদ রানা সবুজ, শাহীন রেজা, বাবু ও আব্দুল হাকিম সহ অজ্ঞাত আরো ৪/৫ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সিরাজগঞ্জ ০৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৪:৩০ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 692 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    সিরাজগঞ্জ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    11340524
    ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:১৪ পূর্বাহ্ন