কাজিপুরে বালু ব্যবসায়ীদের দাপটে ভাঙ্গন ঝুঁকিতে যমুনার তীর সংরক্ষন বাঁধ
০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন


  

  • কাজিপুর/ অপরাধ:

    কাজিপুরে বালু ব্যবসায়ীদের দাপটে ভাঙ্গন ঝুঁকিতে যমুনার তীর সংরক্ষন বাঁধ
    ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০৫:৩৫ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    কাজিপুর সংবাদদাতাঃসিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার যমুনা নদীর ঢেকুরিয়া, মেঘাই, খুদবান্দি ঘাট ও শুভগাছা এলাকায় অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের দাপটে ভাঙ্গন ঝুঁকিতে পড়েছে যমুনা নদীর তীর সংরক্ষন প্রকল্প ও বণ্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ। এছাড়া প্রতিদিন শত শত বালু পরিবহনকারী ট্রাকের ধুলাবালিতে বিভিন্ন রোগ বালাইয়ে আক্রান্ত হচ্ছেন ভাঙ্গন কবলিত এলাকার হাজারো মানুষ। তবে এসব বিষয়ে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছেন না তারা।

    স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, কাজিপুর উপজেলার মাইজবাড়ী, কাজিপুর ও শুভগাছা ইউনিয়নের পূর্ব পাশ দিয়ে বয়ে গেছে যমুনা নদী। প্রতিবছর নদী ভাঙনের কারণে হাজার হাজার একর আবাদি জমি ও শত শত পরিবারের বাড়িঘর ভাঙনের কবলে পড়ে বিলীন হয়েছে। এ কারণে যমুনার ভাঙন ঠেকাতে মাইজবাড়ী ইউনিয়নের ঢেকুরিয়া ঘাট এলাকা থেকে শুভগাছা গ্রাম পর্যন্ত প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা ব্যায়ে নদীর ডান তীর সংরক্ষণ প্রকল্প ও বণ্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ নির্মান করেছে সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড। ওই প্রকল্পের ঢেকুরিয়া ঘাটের উত্তর পাশ থেকে দক্ষিন শুভগাছা পাশে যমুনায় ড্রেজার বসিয়ে অবৈধভাবে কোট কোটি টাকার বালু উত্তোলন করেন কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যত্তি। বালু উত্তোলনের কারনে যমুনা নদীর তীর সংরক্ষন প্রকল্পের বিভিন্ন স্থানে ডেবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। সেই বালু প্রতি ট্রাক বিক্রি করছেন ৬শ থেকে ৮শ টাকায়। এদিকে প্রতিদিন শত শত বালু ভর্তি ট্রাক তীর সংরক্ষন প্রকল্প ও বণ্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের ওপর দিয়ে চলাচল করছে। এতে ধীরে ধীরে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠছে সরকারের শত শত কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত যমুনা নদীর ডান তীর সংরক্ষন প্রকল্প ও বাঁধ। সরকারি প্রকল্পের ক্ষতি করে বালু ব্যবসা করে যাচ্ছেন। 

    বিয়ারা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নূরুল ইসলাম, ঢেকুরিয়া গ্রামের জহরুল ইসলাম, শুভগাছা গ্রামের আমজাদ হোসেন জানান, প্রতিদিন শত শত বালু ভর্তি ট্রাক চলাচল করায় যমুনা নদীর ডান তীর সংরক্ষন প্রকল্প ও বণ্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ হুমকির মুখে পড়েছে। এছাড়া বালু পরিবহনকারী ট্রাকের ধুলাবালিতে এলাকাবাসী বিভিন্ন রোগ বালাইয়ে আক্রান্ত হচ্ছে। তাছাড়া পাকা ও কাঁচা সড়ক ভেঙ্গে যাওয়ায় জনসাধারনের ভোগান্তি দিন দিন বেড়েই চলেছে। এসব বিষয়ে অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার মিলছে না। তবে বালু ব্যবসায়ী কাজিপুর সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ জানান, সব কিছু ম্যানেজ করেই বালু ব্যবসা করে যাচ্ছেন। এতে কোন ক্ষতি হচ্ছে না বলে দাবি করেন তারা।

    এ বিষয়ে কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জাহিদ হাসান সিদ্দিকী বলেন, অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। বালু ব্যবসায়ীদের কারনে সরকারি কোন প্রকল্পের ক্ষতি হলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট,কাজিপুর ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০৫:৩৫ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 166 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    Expo
    Slide background EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech EduTech
    Slide background SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech SaleTech EduTech
    কাজিপুর অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    12263797
    ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন